Main Menu

ড্রোন-খেলনা বিমান-ঘুড়ি ওড়াতেও লাগবে অনুমোদন

দেশের আকাশসীমায় ড্রোন, রিমোটলি পাইলটেড এয়ারক্রাফট সিস্টেম, রিমোট কন্ট্রোলড খেলনা বিমান, ঘুড়ির মতো বস্তু ওড়াতে অনুমোদন নিতে হবে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে।

এ ধরনের বস্তু উড্ডয়নের ৪৫ দিন পূর্বে সংস্থাটির কাছ থেকে অনুমোদন নেয়ার তাগিদ দিয়ে মঙ্গলবার (২১ জুলাই) সংবাদমাধ্যমে একটি বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয়েছে। অনুমোদন ছাড়া উড্ডয়নকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে উল্লেখ করা হয়েছে সেখানে।

ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সম্প্রতি কিছু উৎসাহী ব্যক্তি, বেসামরিক প্রতিষ্ঠান ও সংস্থা (স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, এনজিও, গবেষণা প্রতিষ্ঠান) বিনা অনুমতিতে দেশের আকাশসীমায় ড্রোন, রিমোটলি পাইলটেড এয়ারক্রাফট সিষ্টেম, রিমোট কন্ট্রোলড খেলনা বিমান, ঘুড়ি ইত্যাদি ওড়াচ্ছেন। এতে বিভিন্ন অনুমোদিত যাত্রীবাহী দেশি-বিদেশি বিমান, হেলিকপ্টার এবং দ্রুতগতির সামরিক বিমানের সঙ্গে আকস্মিক দুর্ঘটনার শঙ্কা রয়েছে।

এতে বলা হয়, এ ধরনের অননুমোদিত উড্ডয়ন রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তার প্রতি ঝুঁকি বলে বিবেচিত হচ্ছে এবং বাংলাদেশে বিদ্যমান আইনে তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

এ ধরনের বস্তু ওড়ানোর নূন্যতম ৪৫ দিন আগে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের ওয়েব সাইটে দেয়া নির্ধারিত ফরম অনুযায়ী লিখিত অনুমতি নিতে হবে বলে উল্লেখ করা হয় ওই বিজ্ঞপ্তিতে।






Related News