শিক্ষা

now browsing by category

 
Posted by: | Posted on: October 17, 2021

দেড় বছর পর ক্লাসে ফিরছেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা

শাফিউল বাশার ঃ

মহামারি করোনা আতঙ্ক কাটিয়ে দীর্ঘ দেড় বছর পর রোববার (১৭ অক্টোবর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) সশরীরে পাঠদান কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। এতদিন অনলাইনে ক্লাস চললেও রোববার থেকে সশরীরে শ্রেণিকক্ষে উপস্থিত হয়ে ক্লাস ও পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

এর আগে অনার্স চতুর্থ বর্ষ ও মাস্টার্সের শিক্ষার্থীদের জন্য গত ২৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রন্থাগার এবং ৫ অক্টোবর হল খুলে দেওয়া হয়। এরপর ১০ অক্টোবর সব বর্ষের জন্য হল খুলে দেওয়া হয়।

কোভিড-১৯ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে অন্তত এক ডোজ টিকা নেওয়ার শর্তে ও মানসম্মত পরিচালনা পদ্ধতি সামনে রেখে ক্লাস পরিচালিত হবে বলে জানা গেছে।

সেশনজট নিরসনের জন্য, লস রিকভারি প্ল্যান সামনে রেখে সশরীরে শুরু হতে যাচ্ছে বিভিন্ন বিভাগের পাঠদান। লস রিকোভারি প্ল্যানের আওতায় সেমিস্টার পদ্ধতির ক্ষেত্রে পরীক্ষাসহ সেমিস্টারকাল ৬ মাসের পরিবর্তে ৪ মাস এবং বার্ষিক কোর্স পদ্ধতির ক্ষেত্রে ১২ মাসের পরিবর্তে ৮ মাস করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

ঢাবি ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘ক্লাস ও পরীক্ষাগুলো পরিচালনার ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যলায় কর্তৃক প্রণীত স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসেডিওরস পালনের ওপর সর্বোচ্চ গুরুত্ব আরোপ করা হবে। যেসব বিভাগ, ইনস্টিটিউটে শিক্ষার্থীদের সংখ্যা বেশি ওই বিভাগগুলোতে দুইধাপে ক্লাস নেওয়া হবে।’

এছাড়াও রোববার থেকে সব রুটে আগের সময়সূচি মেনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসগুলোর সঙ্গে বিআরটিসির কিছু বাসও চলাচল করবে বলে জানান পরিবহন ম্যানেজার মো. আতাউর রহমান।

এদিকে, ঢাবির শতবর্ষপূর্তি ও মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আগামী ১ নভেম্বরের পরিবর্তে ১ ডিসেম্বর আয়োজিত হবে। গত রোববার (১০ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষপূর্তি ও মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন কেন্দ্রীয় সমন্বয় কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, সংশ্লিষ্ট অতিথি ও শিক্ষার্থীদের সশরীরে অংশ নেওয়ার অনুকূল পরিবেশ প্রাপ্তির জন্য এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Posted by: | Posted on: October 9, 2021

কারাগার থেকে পরীক্ষা দিচ্ছে জবির ২ শিক্ষার্থী

প্রেস ওয়াচ রিপোর্টঃ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ১২তম ব্যাচের ইসলামিক স্ট্যাডিজ বিভাগের দুই শিক্ষার্থী ঢাকার কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারে থেকে সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন।

শিক্ষার্থী দু’জন হলেন- মাছুদুর রহমান ও আতিকুর রহমান। তারা ৪র্থ বর্ষের ২য় সেমিস্টার পরীক্ষা কারাগার থেকে অংশগ্রহণ করেছেন।

বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) ২ জন শিক্ষার্থীর পরীক্ষা নেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. আইনুল ইসলাম। তিনি বলেন, কারাগারে পরীক্ষা নেওয়ার বিষয়ে নিয়ম আছে। শিক্ষার্থীদের আবেদনের পরে কোর্টের অনুমতিক্রমে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে পরীক্ষা নেয়া হয়েছে।

পরীক্ষা নেয়ার বিষয়ে ইসলামিক স্ট্যাডিজ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মুহাম্মদ কামরুল ইসলাম বলেন, এ বছরের মার্চ মাসে আমাদের ইসলামিক স্ট্যাডিজ বিভাগের দু’জন শিক্ষার্থী গ্রেপ্তার হয়েছেন। সকাল ৯টা থেকে ১২টা পর্যন্ত তাদের পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে। কারাগারেই তাদের সব লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হবে।

দুই শিক্ষার্থীর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে পরীক্ষা ব্যবস্থা করা হয় বলেও জানান কামরুল ইসলাম।

এ বিষয়ে ইসলামিক স্ট্যাডিজ বিভাগের পরীক্ষা কমিটির সভাপতি ড. মো নুরুল আমিন বলেন, আমাদের দুইজন শিক্ষার্থী কারাগারে থেকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে। দু’জনই একই ব্যাচের শিক্ষার্থী।

 
Posted by: | Posted on: October 5, 2021

মঙ্গলবার খুলছে ঢাবির হল

প্রেস ওয়াচ রিপোর্টঃ

করোনা মহামারির দীর্ঘ দেড় বছর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের পর আবার প্রাণ ফিরেছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে। ধীরে ধীরে খুলছে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোও। মঙ্গলবার (০৫ অক্টোবর) খুলে দেওয়া হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল। সকাল ৮টা থেকে থেকে নিজ নিজ হলে উঠতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের আবাসিক হলে উঠার ব্যাপারে আগের সিদ্ধান্তই বহাল রেখেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ফলে ৫ অক্টোবর থেকে সব হলে শুধু অনার্স ৪র্থ বর্ষ এবং মাস্টার্সের আবাসিক শিক্ষার্থীরা উঠতে পারবেন।

এর আগে এক বিজ্ঞপ্তিতে ঢাবি প্রশাসন জানায়, পূর্বঘোষিত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, শুধু অনার্স ৪র্থ বর্ষ এবং মাস্টার্সের যে সকল আবাসিক শিক্ষার্থী অন্ততঃ ‘কোভিড-১৯’-এর প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছে, তারা স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে টিকা গ্রহণের কার্ড/সনদ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের বৈধ পরিচয়পত্র সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে দেখিয়ে আগামী ৫ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে থেকে নিজ নিজ হলে উঠতে পারবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান সকালে বিজয় একাত্তর হল এবং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল পরিদর্শন করবেন।

তবে হল কর্তৃপক্ষের অনুমতি ব্যতীত যারা হলে প্রবেশ এবং অবস্থান করছে, তাদের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা পরিপন্থী কর্মকাণ্ডের জন্য কেন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, এই মর্মে আগামী ৭ অক্টোবরের মধ্যে জবাব চেয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, মহামারি করোনার কারণে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এরপর থেকে দফায় দফায় বন্ধ বাড়িয়ে চলতি মাসের ১২ সেপ্টেম্বর থেকে স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়া হয়।

Posted by: | Posted on: October 2, 2021

অনুমতি ব্যতীত ঢাবি হলে ওঠায় কারণ দর্শানো নোটিশ

প্রেস ওয়াচ রিপোর্টঃ

হল কর্তৃপক্ষের অনুমতি ব্যতীত যারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে প্রবেশ এবং অবস্থান করছে, তাদের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা পরিপন্থী কর্মকাণ্ডের জন্য কেন শাস্তিমুলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, এই মর্মে আগামী ৭ কর্মদিবসের মধ্যে জবাব চেয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

শনিবার (০২ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রভোস্ট স্ট্যান্ডিং কমিটির এক জরুরি সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়।

পরে বিশ্ববিদ্যালয় জনসংযোগ দপ্তর থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।
সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন প্রো-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, প্রো-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ প্রমুখ।
সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, শুধু অনার্স ৪র্থ বর্ষ এবং মাস্টার্স-এর যে সকল আবাসিক শিক্ষার্থী অন্ততঃ করোনা টিকার এক ডোজ টিকা সম্পন্ন করেছেন তারা টিকা গ্রহণের কার্ড/সনদ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের বৈধ পরিচয়পত্র সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে দেখিয়ে আগামী ৫ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে থেকে নিজ নিজ হলে উঠতে পারবে।
পরিস্থিতি পর্যালোচনা সাপেক্ষে একই শর্তে যত দ্রুত সম্ভব অন্যান্য বর্ষের শিক্ষার্থীদের নিজ নিজ আবাসিক হলে উঠানোর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

প্রসঙ্গত, গতকাল দুপুর ও সন্ধ্যায় তালা ভেঙে বিশ্ববিদ্যালয়ের অমর একুশে হল ও ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ হলে জোর করে প্রবেশ করেছে একদল শিক্ষার্থী। তাদের মতে, চলতি মাসের এই পাঁচ দিন বাসায় থাকলে তার জন্য পুরো মাসের ভাড়া গুণতে হবে। তাই ১ তারিখেই হলে উঠেছে তারা।
Posted by: | Posted on: October 2, 2021

উত্তপ্ত রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, কর্তৃপক্ষের নতুন সিদ্ধান্

প্রেস ওয়াচ রিপোর্টঃ

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের (রবি) শিক্ষার্থীদের চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিনকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তবে প্রতিষ্ঠানটি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়নি। চলমান পরীক্ষা সাময়িক স্থগিত করা হয়েছে।

সংশোধিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাতে বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেটের ১৬তম বিশেষ সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শিক্ষার্থীদের চুল কেটে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে চলমান অস্থিরতা নিরসনে শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখতে বিশ্ববিদ্যালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে ফারহানা ইয়াসমিনের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সেই সঙ্গে পরবর্তী নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সব বিভাগের পরীক্ষা স্থগিত থাকবে।

এ বিষয়ে কথা বলতে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যায়ন বিভাগের শিক্ষিকা ইয়াসমিন বাতেনের মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি কল রিসিভ না করায় কথা বলা সম্ভব হয়নি।

যদিও এর আগে ‘একজনেরও চুলও কাটেননি, এমনকি কারও চুলে হাতও দেননি’ বলে দাবি করেছিলেন সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন।

বলেছিলেন, ১৬ জন মানুষের চুল কেটে দেব, কেউ দেখবে না? তারা কোনো ছবি তুলবে না? আমি কাটতে চাইলাম আর ১৬ জন আমাকে চুল কাটতে দিল, কেউ কোনো প্রতিবাদ করবে না? এ রকম কোনো ঘটনা ঘটেনি। আমার কাছে পুরো ব্যাপারটি শুনে অবাক লেগেছে। আমি পত্রিকায় দেখেছি খবরটা।

যদিও তার কাঁচি হাতে দরজার সামনে পায়চারির করার সিসিটিভি ক্যামেরার ভিডিও প্রকাশ পেয়েছে।

সভায় সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক আব্দুল লতিফ। সভায় সদস্য হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক আবু মো. দেলোয়ার হোসেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব-৩ সৈয়দা নওয়ারা জাহান এবং রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশের রেজিস্ট্রার মো. সোহরাব আলী।

গত ২৬ সেপ্টেম্বর রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের প্রথম বর্ষের রাষ্ট্রবিজ্ঞান পরিচিতি বিষয়ের ফাইনাল পরীক্ষার তারিখ নির্ধারিত ছিল। পরীক্ষায় অংশ নিতে শিক্ষার্থীরা হলে ঢোকার সময় ওই বিভাগের চেয়ারম্যান ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন আগে থেকে কাঁচি হাতে হলের দরজার সামনে দাঁড়িয়ে ছিলেন। শিক্ষার্থীরা হলে ঢোকার সময় যাদের মাথার চুল হাতের মুঠোর মধ্যে ধরা যায়, তাদের মাথার সামনের অংশের বেশ কিছু চুল কাঁচি দিয়ে কেটে দেন। এতে ছাত্ররা মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে।

এ ঘটনার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা ফেসবুকে পোস্ট দিলে বিষয়টি ভাইরাল হয়। এর মধ্যে গত সোমবার রাতে দ্বারিয়াপুরের শাহমুখদুম ছাত্রাবাসের নিজ কক্ষের দরজা বন্ধ করে এক ছাত্র অতিমাত্রায় ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এরপর থেকে বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে অবস্থিত বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী ক্যাম্পাসে পরীক্ষা বর্জন করে বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থীরা। এ সময় তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে তালা বুলিয়ে দেয়। অভিযুক্ত শিক্ষকের স্থায়ী অপসারণের এক দফা দাবিতে আমরণ অনশনের ডাক দেয় তারা। লাগাতার তিন দিন আন্দোলন চালিয়ে যায় শিক্ষার্থীরা। এরপর ওই শিক্ষককে সাময়িক বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত আসে।