Main Menu

অবশেষে বিদেশে যাবার সিদ্ধান্ত বেগম জিয়ার,

বিদেশ যেতে চাইছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।শিগগিরই অনুমতি চেয়ে সরকারের কাছে আবেদন করবে তার পরিবার।

রোববার (২ আগস্ট) রাতে বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় আলোচনা শেষে গণমাধ্যমকে এসব কথা জানান তার আইনজীবী ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন।

সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টা থেকে রাত সাড়ে ৯ টা পযন্ত খালেদা জিয়ার সঙ্গে একান্ত বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। এসময় বেগম জিয়ার ছোট ভাই শামীম এস্কান্দারও বৈঠকে ছিলেন।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী জানান, বিএনপি চেয়ারপারসনের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটছে। তার উন্নত চিকিৎসা ও হাঁটুর রিপ্লেসমেন্টের চিকিৎসার জন্য তাকে অবশ্যই বিদেশে যেতে হবে। তাই বেগম জিয়ার পরিবার সরকারের কাছে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ চেয়ে ও তার সাজার স্থগিতাদেশের মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করবেন।

গত ২৫ মার্চ দুর্নীতির দুই মামলার সাজা স্থগিত করে নির্বাহী আদেশে বেগম জিয়াকে ৬ মাসের জামিনে মুক্তি দেয়া হয়। সে অনুযায়ী আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর বেগম জিয়া সাজা স্থগিতাদেশের মেয়াদ শেষ হবে।

তিনি আরো বলেন, সেপ্টেম্বরে খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ শেষ হবার আগেই আবেদনটি করা হবে। বেগম জিয়া খুবই অসুস্থ জানিয়ে তার আইনজীবী জানান, ঈদের দিন দুপুরের খাবার খাওয়ার পর রোববারে রাত পর্যন্ত বেগম জিয়া কিছু খেতে পারেননি। তার হাতের সমস্যাও বেড়েছে। করোনার কারণে হাসপাতালে গিয়ে পরীক্ষাও করাতে পারছেন না।

 






Related News