Main Menu

সাবেক সেনা কর্মকর্তা নিহতের ঘটনায় তদন্তের পর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে -স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল

কক্সবাজারের মেরিনড্রাইভে পুলিশের গুলিতে সাবেক সেনা কর্মকর্তা নিহতের ঘটনায় তদন্তের পর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। রবিবার (২ আগস্ট) স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তার বাসভবনে সাংবাদিকদের একথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা ইতোমধ্যে তদন্ত কমিটি গঠন করেছি। তদন্ত রিপোর্টের পর জানা যাবে কী ঘটেছিল। এই মুহূর্তে আমি কোনও মন্তব্য করতে চাই না। আমি যা মন্তব্য করবো তাতেই একটি প্রভাব পড়বে। তাই এখনই কোনও মন্তব্য করতে চাই না।’

কোনও পুলিশ কর্মকর্তাকে এই ঘটনায় বরখাস্ত করা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সেই আলাপ আলোচনা চলছে। তবে সবকিছুই তদন্তের পর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (৩১ জুলাই) রাত সাড়ে ১০টার দিকে টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়ায় মেরিন ড্রাইভ সড়কের শামলাপুর তল্লাশিচৌকিতে পুলিশের গুলিতে সিনহা রাশেদ খান নামে সাবেক ওই সেনা কর্মকর্তানিহত হন।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই সেনা কর্মকর্তা তার ব্যক্তিগত গাড়িতে করে অপর একজন সঙ্গীসহ টেকনাফ থেকে কক্সবাজার আসছিলেন। মেরিন ড্রাইভ সড়কের বাহারছড়া তল্লাশি চেকপোস্টে পুলিশ গাড়িটি থামিয়ে তল্লাশি করতে চাইলে সেনা কর্মকর্তা বাধা দেন। এই নিয়ে তর্কবিতর্কের একপর্যায়ে সেনা কর্মকর্তা তার কাছে থাকা পিস্তল বের করলে পুলিশ গুলি চালায়। এতে সেনা কর্মকর্তা রাশেদ গুরুতর আহত হন। তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

সম্প্রতি জঙ্গি হামলার আশঙ্কা, পল্লবী থানায় বিস্ফোরণের আইএস’র দায় স্বীকারের বিষয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘জঙ্গিদের স্লিপিং টিম রয়েছে। তবে তাদেন নাশকতা ও হামলার দায় স্বীকারের বিষয়টি প্রচারণা। এগুলো তারা নিজেরাই করে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা এমন কিছু টের পেলে তাদের সেই বিষয়টিতে মনোযোগ দিতে হয়, এটা নিয়ম। তাই আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সেটিকে অ্যাড্রেস করেছে।’

ঈদে নিরাপদে দেশবাসী ঈদ উদযাপন করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘দেশে শান্তিপূর্ণভাবে ও অত্যন্ত নিরাপদে দেশবাসী পবিত্র ঈদুল আজহা পালন করেছেন। ফেরিঘাটগুলোতে মানুষের চাপ ছিল। পদ্মার স্রোত ও ভাঙনের কারণে আমরা মাওয়া ফেরিঘাট বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছি। মানুষের নিরাপত্তার স্বার্থেই।’

দেশের কোথাও কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি উল্লেখ করে তিনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের ধন্যবাদ জানান।






Related News