মাশরাফিদের উড়িয়ে সিরিজ জিতল নিউজিল্যান্ড

মাহাবুবুর রহমান চঞ্চলঃ


এবার আশা করা হয়েছিল কিছু একটা হবে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে। মানে ওয়ানডে সিরিজে একটা জয়। কিন্তু এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতে নিয়েছে নিউজিল্যান্ড। প্রথম ম্যাচের মতো দ্বিতীয় ম্যাচেও বাংলাদেশ ৮ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হেরেছে। আর কিউইদের এই বড় জয়ে বড় অবদান সেই মার্টিন গাপটিলের। প্রথম ম্যাচের মতো তিনি এই ম্যাচেও সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন।


২২৭ রান তাড়া করতে নামা নিউজিল্যান্ডকে একটু বেগও দিতে পারেনি বাংলাদেশের বোলাররা। মোস্তাফিজুর রহমান ৪৫ রানে হেনরি নিকোলসকে(১৪) ফেরান। এরপর অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে সঙ্গে নিয়ে যা করার একাই করেন গাপটিল। ১৮৮ রানে তিনি যখন আউট হন তখন তাঁর নামের পাশে জ্বলজ্বল করছিল ১১৮। ৮৮ বলে ১৪টি চার আর চার ছক্কায় এই রান করেন গাপটিল। ম্যাচ তাঁর অনেক আগেই শেষ হয়েছে। জয়ের জন্য বাকি কাজটুকু সেরেছেন উইলিয়ামসন অপরাজিত ৬১ রান করে। ফলে ৮৩ বল হাতে রেখেই বিশাল জয় তুলে নেয় নিউজিল্যান্ড। দুটি উইকেটই তুলে নিয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান। এখন ২০ ফেব্রুয়ারি তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেটি হয়ে দাঁড়াল নিছকই আনুষ্ঠানিকতার।  এর আগে ক্রাইস্টচার্চে সিরিজ বাঁচানোর ম্যাচে ব্যাট করতে নেমে ৪৯.৪ ওভারে অলআউট হওয়ার আগে বাংলাদেশ তোলে ২২৬ রান।

ব্যাটিংয়ে নেমে বাংলাদেশের দুই ওপেনার তামিম ইকবাল (৫) এবং লিটন দাস (১) দ্রুত ড্রেসিংরুমে ফেরেন। তিন নম্বরে নামা সৌম্য সরকার থিতু হলেও ২৩ বলে তিনটি বাউন্ডারিতে করেন ২২ রান। ২০০তম ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে নামা মুশফিকের ব্যাট থেকে বড় ইনিংস আসেনি, ৩৬ বলে করেন ২৪ রান। মাঝে মোহাম্মদ মিঠুন ব্যাট হাতে আবারো রান পেয়েছেন। আগের ম্যাচে নেপিয়ারে ফিফটি করার পর এই ম্যাচেও ফিফটি করেছেন। ৬৯ বলে সাতটি চার আর একটি ছক্কায় করেন ইনিংস সর্বোচ্চ ৫৭ রান। মাহমুদউল্লাহ ৭ রানে বিদায় নেন। সাব্বির রহমান ৬৫ বলে সাত বাউন্ডারিতে করেন ৪৩ রান। মেহেদি মিরাজের ব্যাট থেকে আসে ১৬ রান। মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ১০, অধিনায়ক মাশরাফি ১৩, মোস্তাফিজ ৫* রান করেন।

নিউজিল্যান্ডের লুকি ফার্গুসন তিনটি, জেমস নিশাম দুটি, টড অ্যাসল দুটি করে উইকেট তুলে নেন। এছাড়া একটি করে উইকেট পান ম্যাট হেনরি, ট্রেন্ট বোল্ট এবং কলিন ডি গ্রান্ডহোম।-তথ্য সূত্র বাসস

Share: