চীনে আবারও করোনা সংক্রমণ, বিশেষ ব্যবস্থাপনায় গানসু প্রদেশ

প্রেস ওয়াচ ডেস্ক রিপোর্টঃ

২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাস নাগাদ চীনের উহান শহর থেকে করোনাভাইরাস বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ে। এর পর কয়েকমাস যেতেই কঠোর নিয়ন্ত্রণ আরোপের মাধ্যমে ২০২০ সালের এপ্রিল নাগাদ করোনার সংক্রমণের তীব্রতা থামিয়ে দেয় চীন। এরপর বেশকিছু সবকিছু প্রায় স্বাভাবিক হলেও আবারও দেশটিতে নতুন করে করোনার সংক্রমণ শুরু হয়েছে।

করোনভাইরাসের সর্বশেষ সংক্রমণ রোধে উত্তর-পশ্চিম চীনের গানসু প্রদেশের ৪৩টি আবাসিক এলাকা গত শনিবার (৩১ অক্টোবর) পর্যন্ত বন্ধ-ব্যবস্থাপনার আওতায় (ক্লোজড অফ ম্যানেজমেন্ট) রাখা হয়েছিল। গত রোববার (৩১ অক্টোবর) স্থানীয় কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

গানসুর করোনা প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণের শীর্ষস্থানীয় গ্রুপ অফিসের ডেপুটি হেড লিয়াং চাওয়াং বলেছেন, স্থানীয় সম্প্রদায়গুলো লানঝো, ঝাংয়ে, জিয়াউগুয়ান, লংনান এবং তিয়ানশুই শহরে বিক্ষিপ্তভাবে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রয়েছে। এসব এলাকার বাসিন্দাদের কঠোর হোম কোয়ারেন্টিন এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা উচিত।

তিনি জানান, কমিউনিটির সেবাপ্রদানকারী কর্মীরা নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলোর জন্য ‘ডোর টু ডোর’ সেবা প্রদান করবে।

গানসুতে শনিবার স্থানীয়ভাবে ৯ জনের শরীরে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে চারজন ল্যানঝো এবং পাঁচজন তিয়ানশুইতে।

আবারও করোনার সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর শনিবার পর্যন্ত এ নিয়ে ৯৫ জনের সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে। আক্রান্ত ব্যক্তিদের সংস্পর্শে আসা প্রদেশটির ৫ হাজার ৪০০ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ‘ম্যাস নিউক্লিক এসিড টেস্ট’ এর জন্য ইতোমধ্যে ৩৪ মিলিয়ন নমুনা নেওয়া হয়েছে।

সূত্র: এএনআই

 
 
  

 

Share: