অনিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল বন্ধের মামলায় পক্ষভুক্ত হতে ভয়েসবিডি টুয়েন্টিফোর এবং নেত্রকোনার আলো ডটকম নামের ‍দুটি পোর্টালের আবেদন

Posted by: | Posted on: October 14, 2021

প্রেসওয়াচ রিপোর্ট: অননুমোদিত ও অনিবন্ধিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধের আদেশের বিরুদ্ধে আইনি লড়াই করতে ওই মামলায় পক্ষভুক্ত হওয়ার জন্য হাইকোর্টে আবেদন করেছে দুটি অনলাইন পোর্টাল।

ভয়েসবিডি টুয়েন্টিফোর এবং নেত্রকোনার আলো ডটকম নামের ‍দুটি পোর্টালের পক্ষ থেকে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় গত সোমবার (১১ অক্টোবর) আবেদন করা হয়েছে। ওই আবেদনের বিষয়টি বুধবার (১৩ অক্টোবর) সাংবাদিকদের জানিয়েছেন আইনজীবী মো. সানজিদ সিদ্দিকী।

সানজিদ সিদ্দিকী বলেন, ‘ঢাকার- ভয়েসবিডি টুয়েন্টিফোর এবং নেত্রকোনার আলো ডটকম কর্তৃপক্ষ অনলাইন পোর্টালের নিবন্ধন (রেজিস্ট্রেশন) করার জন্য সংশ্লিষ্ট দফতরে কাগজপত্র জমা দিয়েছেন। তাদের নিবন্ধন প্রক্রিয়া সমাপ্ত হওয়ার আগেই হাইকোর্ট অনিবন্ধিত অনলাইন পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন। যেহেতু তাদের অনলাইন পোর্টালটির নিবন্ধনপ্রক্রিয়া এখনও সম্পন্ন হয়নি, তাদের অবস্থা কী হবে? সে জন্য তারা হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে আইনি মোকাবিলা করতে পক্ষভুক্ত হওয়ার আবেদন জানিয়েছেন।’

ওই আইনজীবী আরও বলেন, ‘এ বিষয়ে আগামী সপ্তাহে আদালতে শুনানি হতে পারে। তবে, সেই আবেদন হাইকোর্ট বিভাগে নাকি সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে শুনানি হবে তা এখনও নির্ধারণ হয়নি।’

জানা গেছে, আপিলে লড়তে পক্ষভুক্ত হওয়ার আবেদনকারী অনলাইন পোর্টাল নেত্রকোনার আলো ডটকম নিবন্ধনের জন্য ২০১৫ সালের ১০ ডিসেম্বর তথ্য মন্ত্রণালয়ে আবেদন করে। আর ভয়েসবিডি টুয়েন্টিফোর ডটকম ২০১৯ সালের ২৭ জুন আবেদন করে। কিন্তু তাদের ওই আবেদনে কোনো সাড়া দেয়নি তথ্য মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট দপ্তর। তাই তারা মামলায় পক্ষভুক্ত হতে আবেদন করেন।

এর আগে গত ১৪ সেপ্টেম্বর দেশের সব অনিবন্ধিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে সাত দিনের মধ্যে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কাউন্সিলের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যানকে এ নির্দেশ বাস্তবায়ন করে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়।

বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

পরে গত ২৮ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টের আদেশ প্রতিপালনের জন্য আরও সময় চেয়ে আবেদন করে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। আদালত বিটিআরসির আবেদন মঞ্জুর করে এ বিষয়ে আদেশের জন্য আগামী ২৫ অক্টোবর দিন ধার্য করে।

আদালতে বিটিআরসির পক্ষে ছিলেন আইনজীবী ফারজানা শারমিন। রিটের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী জারিন রহমান ও রাশিদা চৌধুরী নীরত

রাজধানীর গুলশানে কলেজছাত্রী মোসারাত জাহান মুনিয়ার মৃত্যুর ঘটনায় অনেক অনলাইন নিউজ পোর্টাল, অনলাইন চ্যানেলে ‘সম্মানহানিকর’ খবর প্রকাশ বন্ধে গত জুন মাসে দুই আইনজীবী রাশিদা চৌধুরী ও জারিন রহমানের করা রিট আবেদনের ধারাবাহিকতায় আদালত এই আদেশ দিয়েছিলেন।

তখন অনুমোদনহীন ও অনিবন্ধিত অনলাইন নিউজ পোর্টালের প্রচার-প্রকাশ বন্ধে আইনি পদক্ষেপ নিতে এবং নিবন্ধনের জন্য বিবেচনাধীন অনলাইন নিউজ পোর্টালগুলোকে নিবন্ধন দিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করে আদালত।

এ ছাড়া রুলে প্রেস কাউন্সিল আইন ১৯৭৪ এর ১১(২)(খ) অনুযায়ী কার্যকর ও উপযুক্ত একটি নৈতিক আচরণবিধি প্রণয়ণে নিষ্ক্রিয়তাকে কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়। এবং পত্রিকা ও অন্যান্য সংবাদ সংস্থা, সাংবাদিকদের উচ্চমানসম্পন্ন পেশাদারিত্বের জন্য একটি নৈতিক আচরণবিধি করার নির্দেশ কেন দেওয়া হবে না, তাও জানতে চাওয়া হয়। তথ্য সচিব, বিটিআরসির চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যানকে রিটে বিবাদী করা হয়েছিল।