দুদিনের মধ্যেই অন্ধকারে ডুবে যাবে দিল্লি!

Posted by: | Posted on: October 10, 2021

প্রেস ওয়াচ রিপোর্টঃ

দুদিনের মধ্যে পর্যাপ্ত কয়লা না পেলে অন্ধকারে ডুবে যাবে ভারতের রাজধানী দিল্লি। শনিবার (৯ অক্টোবর) এমনই সততিনি বলেন, ন্যূনতম এক মাসের কয়লা মজুত থাকা উচিত তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোতে। কিন্তু দিল্লির তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোতে কয়লার মজুত একেবারে তলানিতে পৌঁছেছে। এক দিনের মতো কয়লা মজুত রয়েছে। এর মধ্যে যদি কয়লা সরবরাহ না করা হয়, তাহলে ব্ল্যাকআউট পরিস্থিতি তৈরি হবে দিল্লিতে।

রাজধানী যাতে অন্ধকারে ডুবে না যায়, তাই দ্রুত কয়লা সরবরাহের আহ্বান জানিয়ে কেন্দ্রকে চিঠি লিখেছে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। কোভিডের সময় অক্সিজেনের মতোই কয়লার সংকট তৈরি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন জৈন।

তিনি বলেন, বিষয়টি নিয়ে রাজনীতি শুরু হয়েছে। সংকট তৈরি করে সেই সমস্যা সমাধান করে প্রচার পাওয়ার একটা চেষ্টা চলছে।

জৈন জানিয়েছেন, শহরের বাইরে বাওয়ানায় গ্যাস পরিচালিত এক হাজার ৩০০ মেগাওয়াটের তিনটি বিদ্যুৎকেন্দ্র রয়েছে। এই কেন্দ্রগুলো থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ হয়। বিদ্যুৎ উৎপাদন করে না এই সংস্থাগুলো। ফলে বিদ্যুতের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার পরিচালিত বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোর ওপর নির্ভর করতে হয়। তার অভিযোগ, যদি কেন্দ্র এই বিষয়ে পদক্ষেপ না করে তাহলে আর দুদিনের মধ্যেই অন্ধকার হয়ে যাবে গোটা দিল্লি।

সম্প্রতি প্রকাশিত রিপোর্টে ভারতে কয়লার বিশাল ঘাটতি দেখা দিয়েছে। দেশটিতে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র রয়েছে ১৩৫টি। সারা দেশের প্রয়োজনীয় বিদ্যুতের প্রায় ৭০ শতাংশই সরবরাহ করে এই কেন্দ্রগুলো। এই সব কেন্দ্রের অর্ধেকেরও বেশি কেন্দ্রে যা কয়লা রয়েছে, তাতে তিনদিনও চলবে না! সেই রিপোর্ট প্রকাশ হওয়ার কয়েক দিনের মধ্যেই দিল্লি থেকে এই ধরনের দাবি উঠল।

সূত্র: আনন্দবাজারর্কবার্তা দিলেন দিল্লির বিদ্যুৎমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন।