Main Menu

ঈদে যাত্রীবাহী লঞ্চ চলবে

ঈদুল আজহায় রাজধানীসহ সারা দেশে গণপরিবহন বন্ধ রাখার বিষয়ে বুধবার (১৫ জুলাই) দিনব্যাপী সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের মধ্যে সমন্বয়হীনতার পর, বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী চূড়ান্তভাবে জানালেন, ঈদে গণপরিবহন চলবে।

তবে ঈদের আগের ৩ দিন বন্ধ থাকবে সব ধরনের ভারী যানবাহন।

সকালে এক ভিডিও বার্তায় ওবায়দুল কাদের এ কথা জানান। যদিও করোনার বিস্তার রোধে গণপরিবহণ বন্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছিলো মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

করোনা সংক্রমণ রোধে আসন্ন ঈদুল আজহায় এক জেলা থেকে অন্য জেলায় জনসাধারণের চলাচল সীমিত করার জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে সুপারিশ পেয়ে ঈদের আগের ৫ দিন ও পরের ৩ দিন গণপরিবহণ বন্ধে ব্যবস্থা নিতে ১৪ জুলাই লিখিতভাবে নির্দেশ দেয় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়। এর একদিন পরই ১৫ জুলাই ওই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করতে লিখিতভাবে চিঠি ইস্যু করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও।

এ নিয়ে যখন আলোচনা চলছিল তখন বুধবার সচিবালয়ে লঞ্চ মালিকদের সঙ্গে এক বৈঠক শেষে নৌ প্রতিমন্ত্রী এসব সিদ্ধান্তকে ভুল বোঝাবুঝি দাবি করে জানান, ঈদে যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল করবে।

নৌ প্রতিমন্ত্রী বিষয়টি নিয়ে স্পষ্ট বক্তব্য দিলেও সংশয় রয়ে যায় জনসাধারণের মধ্যে। পরে বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) এক ভিডিও বার্তায় সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী সব সংশয়ের অবসান ঘটিয়ে জানান, ঈদে সব গণপরিবহন চলবে।

বাস লঞ্চের পাশাপাশি ঈদুল আজহায় বর্তমান পদ্ধতিতে ট্রেন চলাচল করবে বলেও জানা গেছে মন্ত্রণালয় সূত্রে।






Related News