283541307_1168660700621364_7841064225626281322_n

প্রেস ওয়াচ রিপোর্টঃমঙ্গলবার ,৩১ মে,২০২২ খ্রি. তারিখে মুজিব শতবর্ষ এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’র ১০২তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত বর্ষকালব্যপী জুম ওয়েবিনারে এক বিশেষ্ সেমিনারের ৩০০তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন ইউএন ডিজএ্যাবিলিটি রাইটস্ চ্যাম্পিয়ন আবদুস সাত্তার দুলাল এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ভোলার চরফ্যাশন উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক মাহমুদা খানম মিলি,ফারইস্ট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক কাজী ফারজানা ইয়াসমিন,নীলফামারী-জলঢাকা থেকে ফাতেমা-তুজ-জোহরা।

সেমিনারে গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন,রংপুর মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আর্জিনা খানম, শিক্ষা ক্যাডারের সহযোগী অধ্যাপক গবেষক আবু সালেক খান এবং মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়,গোপালগঞ্জ এর বঙ্গবন্ধু ইনস্টিটিউট অব লিবারেশন ওয়ার এন্ড বাংলাদেশ স্টাডিজ এর অধীনে পিএইচডি গবেষণারত প্রশান্ত কুমার সরকার।

সভাপতির বক্তৃতায় ড.কলিমউল্লাহ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান  তাঁর নিজস্ব ইমেজ দিয়ে  বিশ্বসভায় বাংলাদেশের পরিচিতি  দ্রুত ছড়িয়ে দিতে সক্ষম হয়েছিলেন।  এছাড়াও বঙ্গবন্ধু পররাষ্ট্রনীতির ক্ষেত্রে প্রভূত কল্যাণ সাধন করেন। তার শাসনামলে ১২৭টি দেশ কর্তৃক স্বাধীনতার স্বীকৃতি আদায় করতে বাংলাদেশ সমর্থ হয়। অন্যদিকে ভারতীয় সৈন্য প্রত্যাহার তার শাসনামলের পররাষ্ট্রনীতির অন্যতম সাফল্য।

আর্জিনা খানম বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সর্বদা ন্যায় বিচার এবং দেশপ্রেমে অটল ছিলেন।

আবদুস সাত্তার দুলাল বলেন,বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক, অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক, শিক্ষা ও গবেষণা ক্ষেত্রে অনেক উন্নতি সাধিত হয়েছে। তথাপিও কিছু কিছু ক্ষেত্রে ঝড়ো হাওয়া বইছে, সে সকল সমস্যা ও চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে আরও অনেক দূর পাড়ি দিয়ে সামনে এগোতে হবে।

অধ্যাপক আবু সালেক খান বলেন, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের পাশাপাশি অর্থনৈতিক সুব্যবস্থাপনা কার্যকর করতে না পারলে দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর দৈনন্দিন জীবনযাত্রার মান বজায় থাকবে না।

প্রশান্ত কুমার সরকার বলেন,১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু বিহীন যে শূন্যতা ছিল তা পূরণ হয়। পরবর্তীতে তিনি বাংলাদেশ রাষ্ট্র গঠনে প্রয়োজনীয় সংস্কার ও উদ্যোগ গ্রহণ করেন।

মাহমুদা খানম মিলি বলেন,আমদের দেশে আর্থ-সামাজিক, অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক, শিক্ষা ও  যোগাযোগের ক্ষেত্রে প্রভূত উন্নতি সাধিত হয়েছে। এ ধারা অব্যাহত রাখার জন্য সরকারকে স্ব স্ব অবস্থান থেকে সহযোগিতা করতে হবে ।  

কাজী ফারজানা ইয়াসমিন বলেন, বঙ্গবন্ধু ছাত্রাবস্থায় থেকে রাজনীতি ও মানুষের অধিকার আদায়ে সচেতন ছিলেন।

সেমিনারে বক্তারা বলেন,বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার স্বপ্নদ্রষ্টা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান এ দেশের জন্য অসামান্য। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাম বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রটির নামের সঙ্গেও অতপ্রোতভাবে জড়িত। সময়ের পরিক্রমায় তিনি এশিয়া ও বিশ্ব রাজনীতির মঞ্চে একজন কিংবদন্তী হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন।

প্রেসওয়াচ সম্পাদক দিপু সিদ্দিকী,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’র ১০২তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে বর্ষকালব্যপী জুম ওয়েবিনারে নিরবচ্ছিন্নভাবে ৩০০টি সেমিনার  সফলভাবে আয়োজনের জন্য  জানিপপ এবং এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও কে শ্রদ্ধা ও অভিনন্দন জানান ।

সেমিনারে অন্যান্যদের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী রাসিল ইবনে মাহবুব।

সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন রয়েল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা’র সহযোগী অধ্যাপক,বিভাগীয় প্রধান ও ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক দিপু সিদ্দিকী। সেমিনারে অন্যান্যদের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন,রাজশাহী থেকে ডা.মনোয়ার ও বি-বাড়িয়া থেকে আইডিয়াল কিডস কেয়ার স্কুলের ভাইস প্রিন্সিপ্যাল বায়েজিদা ফারজানা।