bo

Posted by: | Posted on: September 20, 2021

বগুড়ায় বিয়ের প্রলোভনে এক গৃহবধূর নগ্ন ভিডিও নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকির অভিযোগে মাহমুদ মুন্না (২৫) নামের একজনকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাতে তাকে শেরপুর উপজেলার বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। তার কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন, দুটি সিম কার্ড ও একটি মেমোরি কার্ড পাওয়া গেছে। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে, ওই গৃহবধূ মুন্নার বিরুদ্ধে শেরপুর থানায় মামলা করেন।

পুলিশ ও মামলার এজাহার সূত্র জানায়, মাহমুদ মুন্না বগুড়ার শেরপুর উপজেলার পূণ্যতলা শ্রীরামপুর গ্রামের জমশের আলীর ছেলে। ওই গৃহবধূর সঙ্গে একটি মোবাইল টেলিকমের দোকানে তার দেখা হয়। এরপর ফেসবুক আইডি সংগ্রহ করে বন্ধুত্ব করে। এক পর্যায়ে তাদের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কিছুদিন পর বিয়ের প্রলোভনে নগ্ন ছবি ও ভিডিও দাবি করে মুন্না। এতে গৃহবধূ রাজি না হলে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য ঘটে। পরে ভিডিও কল থেকে ওই গৃহবধূর অর্ধনগ্ন কিছু ছবি ও ভিডিও সংগ্রহ করে সে। তাদের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি হলে শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) বেলা ১২টার দিকে ওই গৃহবধূকে অনৈতিক প্রস্তাব দেয় মুন্না। অন্যথায় সংগ্রহ করা ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়া হুমকি দেয়। এতে ওই গৃহবধূ বগুড়া ডিবি পুলিশের সাইবার টিমের কাছে অভিযোগ করেন। এছাড়া শেরপুর থানায় মামলা করেন। সাইবার পুলিশের একটি টিম রবিবার রাতে গোপনে খবর পেয়ে শেরপুর বাজার এলাকা থেকে মুন্নাকে গ্রেফতার করে।

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) ফয়সাল মাহমুদ জানান, গ্রেফতার মাহমুদ মুন্নার মোবাইল ফোনে একাধিক মেয়ের কাছ থেকে কৌশলে নেওয়া নগ্ন ছবি পাওয়া গেছে। সোমবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে বগুড়া জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।