পল্লবীতে প্রকাশ্যে হত্যা : সাবেক এমপি আউয়াল চার দিনের রিমান্ডে

Posted by: | Posted on: May 21, 2021
পল্লবীতে প্রকাশ্যে হত্যা : সাবেক এমপি আউয়াল চার দিনের রিমান্ডে

দিপু সিদ্দিকী ॥ রাজধানীর পল্লবীতে প্রকাশ্যে সাহিনুদ্দিনকে (৩৩) কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় লক্ষ্মীপুর-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য এম এ আউয়ালকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

শুক্রবার (২০ মে) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট নিভানা খায়ের জেসি রিমান্ডের এই আদেশ দেন।

শুক্রবার দুপুরে তাকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন ডিবির পরিদর্শক সৈয়দ ইফতেখার হোসেন। অপরদিকে আসামিপক্ষে আইনজীবী রিমান্ড বাতিল পূর্বক জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক তার চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। সিএমএম আদালতের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর আজাদ রহমান এ তথ্য জানান।

বৃহস্পতিবার (২০ মে) সকালে ভৈরবের একটি মাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ান (র‌্যাব)।

গত রবিবার (১৬ মে) পল্লবীতে আধিপত্য বিস্তার ও জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সাহিনুদ্দিন নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। নিহত সাহিনুদ্দিনের মাশরাফি নামে ৭ বছরের একটি ছেলে রয়েছে। ঘটনার সময় সে তার বাবার সঙ্গে ছিল।

জানা গেছে, বিকেলে মাশরাফি তার বাবার সঙ্গে মোটরসাইকেলে ঘুরছিল। এমন সময় একজন তার বাবাকে ফোন করে ৩১ নম্বর রোডে দেখা করার কথা বলেন। সেখানে পৌঁছালে মাশরাফিকে মোটরসাইকেল থেকে নামিয়ে তার বাবার সঙ্গে বাদানুবাদে জড়ান ওই ব্যক্তি।

এরপর তার চোখের সামনেই তার বাবাকে লাথি মেরে মোটরসাইকেল থেকে ফেলে দেন ৬-৭ জন। এরপর তারা তাকে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকেন। বাঁচার জন্য সাহিনুদ্দিন পাশের একটি বাড়ির গ্যারেজে আশ্রয় নিলেও সন্ত্রাসীরা সেখানে ঢুকে তাকে কুপিয়ে হত্যা করে।

এ ঘটনায় নিহতের মা পল্লবী থানায় ২০ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় প্রধান আসামি করা হয় সাবেক সংসদ সদস্য আউয়ালকে।

মামলায় বাদী অভিযোগ করেছেন, পল্লবীর আলীনগর এলাকায় তাদের প্রায় ১০ একর জমি জবরদখলের পাঁয়তারা করছিল আসামিরা। এর জের ধরেই তারা তার ছেলেকে হত্যা করেছে।

এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গত ১৯ মে মো. সুমন ব্যাপারী (৩৩) ও মো. রকি তালুকদারকে গ্রেফতার করা হয়। তারা বৃহস্পতিবার ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্তার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এম এ আউয়ালকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।

ইসলামী গণতান্ত্রিক পার্টির চেয়ারম্যান ও তরিকত ফেডারেশনের সাবেক মহাসচিব এম এ আউয়াল। তিনি হাভেলি প্রপার্টি ডেভেলপমেন্ট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক।