Main Menu

হাতির পিঠে বরযাত্রা

পিতার শখ ছিল, হাতি-ঘোড়ার বহর নিয়ে ছেলে বিয়ে করতে যাবে। পিতার সেই শখ মেটানোর জন্যই মেহেরপুরের গাংনীতে হাতির পিঠে চড়ে বিয়ে করতে গেলেন ছেলে। সঙ্গের বরযাত্রীরা গেলেন গরু-মহিষ আর ঘোড়ার গাড়িতে।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে গাংনী উপজেলার গাড়াডোব গ্রামের মুন্সিপাড়া থেকে হাতির পিঠে করে সদর উপজেলার মদনাডাঙ্গা গ্রামের আকছেদ আলীর মেয়ে সানজিদা আক্তার শাওনকে বিয়ে করতে যান বর তুলিপ হাসান।

তুলিপ গাড়াডোব মুন্সিপাড়ার ময়নাল হকের ছেলে।

এ বিষয়ে তুলিপ হাসান বলেন, ‘বিয়ে নিয়ে মানুষের অনেক জল্পনা কল্পনা থাকে। সবাইই ব্যতিক্রম কিছু করতে চায়। সেই উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে এবং পিতার শখ পুরণের জন্যই হাতিতে চড়ে বিয়ে করতে আসা।’

বরের স্বজন ও ধানখোলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আখেরুজ্জামান জানান, করোনা পরিস্থিতির কথা চিন্তা করে এই ধরনের উদ্যোগ নেওয়া ঠিক হয়নি। তবে বরের পিতা ময়নাল হকের শখের কারণে অল্প সংখ্যক লোকজন নিয়ে স্বল্প পরিসরে এই বিয়ের আয়োজন করা হয়েছে। বর্তমানে সব কিছুতে আধুনিকতার ছোঁয়া থাকলেও এই ব্যতিক্রমধর্মী বিয়ে পুরাতন ঐতিহ্যকে স্মরণ করিয়ে দিয়েছে।

উল্লেখ্য, এই বছরের গোড়ার দিকে গাংনীতে আরও একটি ব্যাতিক্রমী বিয়ে হয়। বিয়ের দীর্ঘদিনের ঐতিহ্য ভেঙে চুয়াডাঙ্গা থেকে এক কনে সঙ্গে বহর নিয়ে বরের বাড়ি এসে বরকে বিয়ে করেন ।






Related News