Main Menu

একজন আলোর মশাল বাহক, প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও

উপাচার্য প্রফেসর ড. মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও
খুব কাছ থেকে দেখা একজন আলোর মশাল বাহক, যার সাথে না মিশলে আমি জানতাম না যে মেধা কি জিনিস। তাঁর সততা ও আদর্শের কাছে আমি মুগ্ধ। তিনি আমাকে শিখিয়েছেন শত প্রতিকূলতার মাঝেও কিভাবে সততার সাথে বেঁচে থাকতে হয়। তিনি আমার জীবনে আদর্শ। তিনি আর কেউ নন, তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রেড-১ প্রফেসর, জাতীয় নির্বাচন পর্যবেক্ষণ পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর-এর মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও স্যার।

ওনার সাথে পথ চলতে দেখেছি, স্যার মানুষে মানুষে কোন তফাত করেন না। ওনার সাথে আমি অনেক ভিআইপি প্রোগ্রামে গিয়েছি। যথাসম্ভব আমাকে উনি সাথেই রাখতেন এবং সকল সুবিধা নিশ্চিত করতেন। আমি জানতাম না বুফে খাওয়া, আমি জানতাম না কাটা চামচে খাওয়া, আমি জানতাম না কোট টাই পরা আর এসব আমি ওনার কাছেই শিখেছি। ওনার কাছে শিখেছি কিভাবে দায়িত্বের সাথে কাজ করা যায়। ওনার কাছে ছোট বড় কোন তফাত নেই। একই হোটেলে একই টেবিলে বসে খাওয়া, একটি বড় ভাজা মাছ কেটে দু তিন জনে খাওয়া, একই হোটেলে সম সুবিধায় রাত্রি যাপন করা। যার মাঝে কোন ভেদাভেদ আমি দেখিনি।

ওনার মত এমন মহৎ ব্যক্তির সান্নিধ্য পেয়ে আমি নিজেকে ধন্য মনে করছি। যার মাঝে আমি দেখেছি আমাদের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর নিয়ে অনেক বড় স্বপ্ন। আমি চাই তাঁর হাত ধরে এই বিশ্ববিদ্যালয় অনেক দূর এগিয়ে যাক, আমরা যেন পাই একটি আদর্শ বিশ্ববিদ্যালয়। আমি ওনার সুস্থতা ও দীর্ঘায়ু কামনা করছি। আল্লাহ যেন ওনার সহায় হোন।

মোঃ মনিরুজ্জামান (মনু)
ড্রাইভার, ও
সভাপতি,
পরিবহন ও কর্মচারী ইউনিয়ন,
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর।