Main Menu

করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে ৯ কোম্পানির ‘ঐতিহাসিক অঙ্গীকার’

করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে ৯ কোম্পানির ‘ঐতিহাসিক অঙ্গীকার’

বিদেশ ডেস্ক
করোনাভাইরাসের সম্ভাব্য ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী ৯টি কোম্পানির পক্ষ থেকে বৈজ্ঞানিক ও নৈতিক মান বজায় রাখার এক ঐতিহাসিক অঙ্গীকারের কথা ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। এই কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে সম্ভাব্য ভ্যাকসিন উদ্ভাবনে এগিয়ে থাকা আস্ট্রাজেনেকা, মডার্নাসহ আরও সাতটি কোম্পানি। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এখবর জানিয়েছে।

২০২০ সালের মধ্যেই সাধারণ জনগণের জন্য করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নিয়ে আসার ঘোষণার পর এগুলোর নিরাপত্তা ও কার্যকারিতা নিয়ে চলমান বিতর্কের মধ্যেই এই ঘোষণা দিলো কোম্পানিগুলো। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ঘোষণা দিয়েছেন, নভেম্বরের নির্বাচনের আগে তিনি অন্তত একটি ভ্যাকসিন চান।

ঐতিহাসিক অঙ্গীকারের ঘোষণায় কোম্পানিগুলো জানিয়েছে, ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের তিনটি ধাপ সম্পূর্ণ করার পরই কেবল তারা ভ্যাকসিনের অনুমোদনের জন্য আবেদন করবে।

অঙ্গীকারকারী কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে, আস্ট্রাজেনেকা, জনসন অ্যান্ড জনসন, বায়োএনটেক, গ্ল্যাক্সোস্মিথক্লাইন, মডার্না, নোভাভ্যাক্স, ফাইজার ও মাক।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, প্রায় ১৮০টি ভ্যাকসিন ক্যান্ডিডেটের বিভিন্ন পর্যায়ের পরীক্ষা চলছে। তবে কোনও ভ্যাকসিনই ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল সম্পূর্ণ করেনি। ফলে অনেক বিজ্ঞানী আশঙ্কা করছেন, দ্রুত ভ্যাকসিন নিয়ে আসার পেছনে রাজনৈতিক কারণ রয়েছে এবং এতে জনগণের বিশ্বাস নষ্ট হতে পারে।

কোম্পানিগুলার অঙ্গীকারে ডোনাল্ড ট্রাম্পের কথা উল্লেখ করা হয়নি। তবে তারা বলেছে, তাদের এই উদ্যোগের ফলে জনগণের আস্থা বাড়বে। ৯টি ওষুধ নির্মাতা কোম্পানি অঙ্গীকার করেছে, ভ্যাকসিন গ্রহণকারী ব্যক্তিদের নিরাপত্তা ও কল্যাণ আমাদের শীর্ষ অগ্রাধিকার।

এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এই ৯টি কোম্পানি ৭০টিরও বেশি নতুন ভ্যাকসিন উদ্ভাবন করেছে যেগুলো বিশ্বের অনেক জটিল রোগ ও জনস্বাস্থ্যের হুমকি নির্মূল করেছে।






Related News