Main Menu

কামরাঙ্গীরচরে কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগের নেতাদের মধ্যে সংঘর্ষ,৯ জনআহত।

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে স্থানীয় কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগের নেতাদের মধ্যে সংঘর্ষে দু’পক্ষের অন্তত ৯ জন আহত হয়েছেন।

সোমবার (১৭ আগস্ট) বেলা দেড়টার দিকে ঘটনাটি ঘটে। আহত অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসলে তাদেরকে চিকিৎসা দেয়া হয়।

আহতরা হলেন- কামরাঙ্গীরচর ৫৬ নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জামাল দেওয়ান (৫৫), এমারত হোসেন (৬৫), মো. লিটন ব্যাপারী (৫০), নিলয় দেওয়ান (১৭) আকাশ দেওয়ান (২৫) ও কামাল হোসেন (৩৫)।

কমিশনার গ্রুপের আহতরা হলেন- মশিউর রহমান (৫০), আওয়ামী লীগের ইউনিট সভাপতি শহীদুল ইসলাম (৪০) ও আব্দুস সালাম (৫০)।

আহত জামাল দেওয়ান জানান, কামরাঙ্গীরচরে পশ্চিম রসুলপুর ট্যানারি পুকুরপাড় তাদের নিজেদের বাড়ি। কামরাঙ্গীরচর ৫৬ নম্বর ওয়ার্ড কমিশনার ও তার লোকজনের অত্যাচারে অতিষ্ঠ তারা। এ বিষয় নিয়ে তাদের মূল সংগঠনে একাধিকবার জানানো হয়েছে। কিন্তু কোনো সুরাহা হয়নি। আজ দুপুরে বাড়ির সামনে একটি বেসরকারি টেলিভিশনে কমিশনার মো. হোসেনের বিরুদ্ধে সাক্ষাৎকার দিচ্ছিলেন। এ সময় কমিশনারের লোকজন অতর্কিত তাদের ওপর হামলা করে। এতে তারা আহত হন।

এদিকে কাউন্সিলর গ্রুপের আহত শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘জামাল দেওয়ান ও তার লোকজন এলাকায় সন্ত্রাসী সৃষ্টি করেছে। তারা জোর করে আমাদের একটি জমি বিক্রির পায়তারা করছে। প্রতিবাদ করতে গেলে তারা আমাদের ওপর হামলা করেন।’

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ বক্সের ইনচার্জ (পরিদর্শক) বাচ্চু মিয়া বলেন, ‘মারামারির ঘটনায় ৯ জন আহত হয়ে হাসপাতালে এসেছিলেন। তাদের সবাইকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।’






Related News