Main Menu

রাজশাহীতে পদ্মার পানি কমছে, বাঁধ রক্ষায় নদীতে ফেলা হচ্ছে জিও ব্যাগ

রাজশাহীতে পদ্মা নদীর পানি কমছে। সোমবার (১০ আগস্ট) সন্ধ্যা ৬টায় পদ্মায় পানি রেকর্ড করা হয়েছে ১৬ দশমিক ৬৫ সেন্টিমিটার। এর মধ্যেই শ্রীরামপুর পুলিশ লাইনের সামনের শহররক্ষা বাঁধের নিরাপত্তায় নদীতে ফেলা হচ্ছে বালুভর্তি জিও ব্যাগ। দুপুরে নগরীর শ্রীরামপুর পুলিশ লাইনের সামনে শহররক্ষা বাঁধে গিয়ে দেখা যায়, নৌকা ভর্তি করে শ্রমিকরা বালুভর্তি জিও ব্যাগ নদীতে ফেলছেন।

পানি উন্নয়ন বোর্ড জানায়, পুলিশ লাইনের সামনের শহররক্ষা বাঁধের নিচ থেকে ব্লক সরে গেছে। ফলে বাঁধের কিছুটা অংশ দেবে গেছে। এজন্য জরুরি অস্থায়ী প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থা হিসেবে দুটি প্যাকেজের আওতায় জরুরি ভিত্তিতে চার হাজার ২০৬টি জিও ব্যাগ ফেলা হচ্ছে। রবিবার থেকে শুরু হয়েছে এই জিও ব্যাগ ফেলা কার্যক্রম।

এ বিষয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী আসিফ আহমেদ জানান, বাঁধের নিচ থেকে ব্লক সরে গেছে। বাঁধের নিচে মজবুত করার জন্য বাঁধ থেকে সোজাসুজি ২২ মিটার দূরে পদ্মা নদীতে ফেলা হচ্ছে জিও ব্যাগ। কারণ বাঁধের নিচে মজবুত করে তারপর ওপরে মজবুত করতে হবে।

 এর আগে রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী কোহিনুর আলম জানিয়েছেন, রাজশাহী শহররক্ষা বাঁধের শ্রীরামপুর অংশ সংস্কারের জন্য নতুন পরিকল্পনা এরইমধ্যে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে জমা দেওয়া হয়েছে। যা এখনও পাস হয়নি। এছাড়া রাজশাহী পয়েন্টে পদ্মার পানি এখনও বিপৎসীমার অনেক নিচে আছে। তাই এখনই শহররক্ষা বাঁধ নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। রাজশাহীতে পদ্মার পানির বিপৎসীমার উচ্চতা ১৮ দশমিক ৫০ মিটার।

উল্লেখ্য, গত ১৮ বছরে রাজশাহীতে পদ্মা নদীর পানি বিপৎসীমা অতিক্রম করেছে মাত্র দু’বার। এর মধ্যে ২০০৪ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত টানা ৮ বছর রাজশাহীতে পদ্মার পানি বিপৎসীমা অতিক্রম করেনি। কেবল ২০০৩ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর রাজশাহীতে পদ্মার সর্বোচ্চ উচ্চতা ছিল ১৮ দশমিক ৮৫ মিটার। এরপর ২০১৩ সালের ৭ সেপ্টেম্বর রাজশাহীতে পদ্মা বিপৎসীমা অতিক্রম করেছিলো। ওই বছর পদ্মার উচ্চতা দাঁড়িয়েছিলো ১৮ দশমিক ৭০ মিটার। এরপর আর এই রেকর্ড ভাঙেনি।






Related News