আজ টিকা উৎপাদনে ইনসেপটা-সিনোফার্ম চুক্তি

Posted by: | Posted on: August 16, 2021

ডেইলি প্রেসওয়াচঃ

চীনের সিনোফার্মের টিকা এবার দেশেই উৎপাদিত হচ্ছে। এ জন্য সোমবার (১৬ আগস্ট) ত্রিপক্ষীয় চুক্তি হতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও ইনসেপটা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ বিভাগ থেকে জানানো হয়েছে, করোনার টিকা সংক্রান্ত বিষয়াদি নিয়ে চীন ও বাংলাদেশের মধ্যে সোমবারের সমঝোতা চুক্তি সই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

ইনসেপটা ফার্মাসিউটিক্যাল বাংলা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছে, চীনের সিনোফার্মের সঙ্গে সোমবার এ চুক্তি সম্পাদন হতে যাচ্ছে।

এটি একটি ত্রিপক্ষীয় চুক্তি বলে জানিয়ে ইনসেপটা ফার্মাসিউটিক্যালসের ডেপুটি প্রোগ্রাম ম্যানেজার মিজানুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘চীন সরকার, বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং ইনসেপটা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের মধ্যে একটি চুক্তি সই হবে।’ সিনোফার্মের ভ্যাকসিন বাংলাদেশে তৈরি হবে বলে যেটা এতদিন আমরা শুনে আসছিলাম, সেটাই হতে যাচ্ছে—বলেন মিজানুর রহমান।

টিকা উৎপাদনের জন্য ইনসেপটা কতটা প্রস্তুত জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘টেকনিক্যাল অ্যাবিলিটি, প্রোডাকশন ক্যাপাসিটি এবং কোয়ালিটি মেনটেইন করা সম্ভব কিনা সেটা যাচাই-বাছাই হয়ে গেছে আরও ছয় মাস আগে। আর সেখানে সিনোফার্ম কোম্পানি, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এ সম্পর্কিত সক্ষমতা যাচাই কমিটি এ কাজগুলো করেছে।’

তিনি বলেন, ‘ইনসেপটা সেখানে নিজেদের প্রমাণ করতে পেরেছে।’

তাহলে  ইনসেপটা কবে নাগাদ টিকা উৎপাদনে যেতে পারবে প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘এটা নির্ভর করছে সিনোফার্ম কবে নাগাদ আমাদের ম্যাটারিয়াল দিতে পারবে। যত দ্রুত তারা দেবে, তত দ্রুতই উৎপাদনে যাওয়া সম্ভব হবে। কিন্তু সেটা খুব বেশি দেরি হবে না। চুক্তি সই হয়ে যাবার পরই চীন সরকার আমাদের এ সংক্রান্ত সব তথ্য দেবে বলে আশা করছি আমরা।’

এর আগে গত ২৮ এপ্রিল অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে চীন ও রাশিয়া উদ্ভাবিত করোনার টিকা বাংলাদেশের কয়েকটি ওষুধ কোম্পানির মাধ্যমে দেশেই উৎপাদনের নীতিগত অনুমোদন দেয়।

এদিকে, সিনোফার্মের এই টিকা দেশে প্রয়োগ শুরু হয় গত ২৫ মে থেকে।

চীন থেকে এ পর্যন্ত এক কোটি ২৫ লাখ ডোজ সিনোফার্মের টিকা এসেছে। এরমধ্যে চীন সরকার ২১ লাখ ডোজ বাংলাদেশকে উপহার হিসেবে দেয়। ৩৪ লাখ ডোজ আসে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্স গাভি পরিচালিত কোভ্যাক্স কর্মসূচির আওতায়। বাকি ৭০ লাখ ডোজ টিকা এসেছে  ক্রয়চুক্তির আওতায়।

 

জা/মা