Main Menu

কিশোরগঞ্জে আ.লীগে ২ বিদ্রোহী প্রার্থী, বিএনপিতে একজন

ডেইলি প্রেসওয়াচ রিপোর্টঃ

আগামী ১৬ জানুয়ারি দ্বিতীয় ধাপে অনুষ্ঠেয় কিশোরগঞ্জ ও কুলিয়ারচর পৌরসভায় মোট ৯ জন প্রার্থী মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে কিশোরগঞ্জ পৌরসভায় সাতজন ও কুলিয়ারচরে দুজন প্রার্থী রয়েছেন।

রবিবার (২০ ডিসেম্বর) মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনে বিকেল পর্যন্ত উৎসবমুখর পরিবেশে মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদেও প্রার্থীরা সমর্থকদের নিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্বপ্রাপ্ত জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে গিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন।

কিশোরগঞ্জ পৌরসভায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. পারভেজ মিয়া, স্বতন্ত্র (বিদ্রোহী) প্রার্থী হিসেবে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মো. শফিকুল গনি ঢালী, স্বতন্ত্র (বিদ্রোহী) প্রার্থী সাবেক কাউন্সিলর একেএম নজরুল ইসলাম ভূঞা জুয়েল মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। শেষের দুজন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

অন্যদিকে বিএনপি মনোনীত জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ইসরাইল মিয়া ও দলীয় বিদ্রোহী হয়ে সাবেক মেয়র আলহাজ মো. আবু তাহের মিয়া স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া অন্য প্রার্থীরা হলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. নজরুল ইসলাম ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. স্বপন মিয়া।

এদিকে কুলিয়ারচর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপি মনোনীত নুরুল মিল্লাত ও আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হিসেবে সৈয়দ হাসান সারওয়ার মহসিন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

কিশোরগঞ্জ পৌরসভায় সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ২২জন ও কাউন্সিলর পদে ৬১জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। আর কুলিয়ারচর পৌরসভায় সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১২জন, কাউন্সিলর পদে ৪২জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্বপ্রাপ্ত জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আশ্রাফুল আলম জানান, ২২ ডিসেম্বর প্রার্থিতা যাচাইবাছাই, ৩০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ ও ১৬ জানুয়ারি এ দু পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।






Related News