Main Menu

ডিএসসিসি’র ৭৩ নং ওয়ার্ডে চলছে রুটিনমাফিক মশক নিধন অভিযান ,এলাকাবাসীর সন্তোষ।

মাহবুব বাশারঃ ডেঙ্গু প্রতিরোধে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৭৩ নং ওয়ার্ডে চলছে রুটিনমাফিক মশক নিধন অভিযান। দক্ষিণগাঁও, নয়াবাগ,কুসুমবাগ,মানিকদিয়া,বেগুনবাড়ি সহ বিভিন্ন মহল্লায়   ফগার মেশিন ও ঔষধ স্প্রে করার মাধ্যমে মশক নিধন অভিযান চালানো হচ্ছে।রুটিনমাফিক এসকল কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করেছে এলাকাবাসী।উল্লেখ্য, মশা নিয়ন্ত্রণের নতুন কর্ম পরিকল্পনা অনুযায়ী বছরব্যাপী সমম্বিত মশক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রম গত ৭জুন  উদ্বোধন করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের  মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস । এরই ধারাবাহিকতায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন ৭৩নং ওয়ার্ডে সকল কর্ম কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছেন ৭৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ্ব মোঃ শফিকুল ইসলাম।ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ্ব মোঃ শফিকুল ইসলাম ডেইলি প্রেসওয়াচ কে বলেন, ৭৩নং ওয়ার্ডে  পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন অভিযান অব্যাহত রয়েছে। করোনা পরিস্থিতিতেও ৭৩নং ওয়ার্ডজুড়ে নালা, ছড়া, ড্রেনের ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার অব্যাহত রয়েছে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৭৩ নং ওয়ার্ডে চলছে রুটিনমাফিক মশক নিধন অভিযান। দক্ষিণগাঁও, নয়াবাগ,কুসুমবাগ,মানিকদিয়া,বেগুনবাড়ি সহ বিভিন্ন মহল্লায় ফগার মেশিন ও ঔষধ স্প্রে করার মাধ্যমে মশক নিধন অভিযান চালানো হচ্ছে।

কাউন্সিলর শফিকুল ইসলাম বলেন, মশার উপদ্রব ঠেকাতে এলাকাবাসীকে নিজ বাসা বাড়ি পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। এডিস মশার উৎস চিহ্নিতকরণে ৭৩নং ওয়ার্ড নগরবাসীকে আরো সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।অভিযানে মশার লার্ভা দমনের জন্য “লার্ভিসাইড” ঔষধ স্প্রে করা হচ্ছে। উড়ন্ত মশার জন্য এডাল্টিসাইড ঔষধ ফগার মেশিন দিয়ে ছিটানো হচ্ছে। অভিযানের অংশ হিসাবে ডেঙ্গু মশার উৎস চিহ্নিতকরণের কাজও চলছে।বাসাবাড়ির আশপাশে, ফুলের টবে, পুরানো টায়ারে, নির্মাণাধিন স্থাপনায় যাতে পানি জমে থাকতে না পারে সেজন্য সবাইকে সচেতন হওয়ার আহবান জানান কাউন্সিলর।

গত ৭ জুন ঢাকা দক্ষিণের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস ‘বছরব্যাপী সমন্বিত মশক নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তাপস বলেন, দক্ষিণের ৭৫টি ওয়ার্ডে একযোগে এডিস নিধন কর্মসূচি চলবে। আর এ ব্যাপারে কোনো অনিয়ম সহ্য করা হবে না।

 






Related News