Main Menu

শহরতলীতে হাওড় বিলাস – নজরুল ইসলাম

দুপাশে মাঠ থৈথৈ পানি।সাদাবক আর পানকৌড়ির জলকেলি।দিগন্ত বিস্তৃত নীল আকাশের হাতছানি। মায়াবী সবুজের বুকচিরে চলে গেছে সদ্যনির্মিত পিচঢালা রাস্তা।এই রাস্তাটি পাল্টে দিয়েছে নিরাভরণ এলাকার চালচিত্র। ঋতু রাণী বর্ষায় বাংলার শ্বাশত রুপ দেখতে চাইলে এই স্পটটি হতে পারে একটি বিকেলের “ঘর হতে শুধু দুই পা ফেলিয়া একটি ধানের শিষের উপরে একটি শিশিরবিন্দু” দেখার অপার আনন্দের উৎস।সবুজবাগ থানাধীন নবগঠিত ৭৩ নং ওয়ার্ডের মাঠের মাঝখানে সম্প্রতি সড়ক ও জনপথ একটি চমৎকার রাস্তা নির্মাণ করেছে।রাস্তাটি কোনাপাড়া টু মানিকদিয়া। কিভাবে আসবেনঃ যাত্রাবাড়ী টু সুলতানা কামাল ব্রীজ(তারাবো) এর রাস্তার কোনাপাড়া তে নামতে হবে।অথবা ঠাকুর পাড়া বৌদ্বমন্দির থেকে সিএনজি রিক্সায় করে মানিকদিয়া ক্লাব।তাছাড়া মুগদা মান্ডা হয়ে গ্রীনমডেল টাউনের ভিতর দিয়েও আসা যায়।এখানে চমৎকার কিছু ফুচকা,ফাস্টফুডের কটেজ গড়ে উঠেছে। রাস্তাটি সীমিত যানবাহন চলাচলের ফলে পথচারী বিশেষ করে প্রাত ভ্রমণকারীদের কাছে খুবই প্রিয় একটি স্থান।তবে বাইকারদের লাগামহীন মোটর সাইকেল চালনা পথচারীদের কিঞ্চিৎ বিড়ম্বনা ঘটায়।তাদের প্রতি বিশেষ অনুরোধ তারা যেন সীমিত গতি ও সাবধানে বাইক চালায়।এই রাস্তাটির পূর্বদিকে কিছু অংশে রয়েছে গ্রীনমডেল টাউন।গ্রীনমডেল টাউনের সবুজ বৃক্ষরাজী আর নিরিবিলি পরিবেশ ভ্রমণ পিয়াসুদের কাছে বাড়তি পাওনা। ঢাকা শহরের নাগরিক জীবনের কোলাহল মুক্ত একটি বিকেলে কাটাতে কোনাপাড়া টু মানিকদিয়া রাস্তাটি হতে পারে হাতের কাছে হাওড়ের নিকলী মিঠামইন রাস্তার বিকল্প।শহরতলীতে হাওড় বিলাস। 

 

ঢাকা শহরের নাগরিক জীবনের কোলাহল মুক্ত একটি বিকেলে কাটাতে কোনাপাড়া টু মানিকদিয়া রাস্তাটি হতে পারে হাতের কাছে হাওড়ের নিকলী মিঠামইন রাস্তার বিকল্প।শহরতলীতে হাওড় বিলাস।

সবুজবাগ থানাধীন নবগঠিত ৭৩ নং ওয়ার্ডের মাঠের মাঝখানে সম্প্রতি সড়ক ও জনপথ একটি চমৎকার রাস্তা নির্মাণ করেছে।রাস্তাটি কোনাপাড়া টু মানিকদিয়া।






Related News