‘জিনের বাদশার’ কথায় ২৮ লাখ টাকা হারালেন প্রবাসী

Posted by: | Posted on: September 23, 2021

প্রেস ওয়াচ রিপোর্টঃ সৌদি নাগরিককে দেশে এনে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক ব্যক্তির কাছ থেকে ২৮ লাখ ৩৬ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে তিন জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ভুক্তভোগী ব্যক্তি থানায় মামলা দায়েরের পর বুধবার রাতে চট্টগ্রাম নগরী ও কক্সবাজারে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ।

কোতোয়ালি থানার ওসি নেজাম উদ্দিন এ তথ্য জানিয়েছেন। গ্রেফতার তিন জনকে আদালতের মাধ্যমে বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান। গ্রেফতার তিন জন হলেন মো. আব্দুল মান্নান (৫৮), মো. জোবাইর হোসাইন রিজভী (২৩) ও আবু তৈয়ব (৫৮)।

নেজাম উদ্দিন  বলেন, ভুক্তভোগী আবুল হাছান দীর্ঘ ২২ বছর সৌদি আরবে থাকার পর দুই বছর আগে দেশে ফেরেন। ছুটি শেষে পুনরায় সৌদি আরবে যেতে চাইলে দেখেন ভিসায় সৌদি আরবে প্রবেশ নিষিদ্ধ সিল দেওয়া। তিনি সৌদি আরবে যেতে পারেননি। সৌদি নাগরিক আদনান সাঈদ তার টাকা-পয়সা সব নিয়ে ধোঁকা দিয়েছেন। স্ত্রীর গহনা বিক্রি করতে গিয়ে পরিচয়ের পর হাজারী গলির স্বর্ণের দোকানের কর্মচারী আবুল হাছানকে ঘটনা খুলে বলেন। এরপর তার সমস্যা সমাধানের জন্য জিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে মো. আব্দুল মান্নানের কাছে নিয়ে যান হাছান।

মান্নান ধর্মীয় আধ্যাত্মিক শক্তি এবং জিনের মাধ্যমে সৌদি নাগরিক আদনান সাঈদকে বাংলাদেশে এনে দিতে পারবেন বলে জানান। বাংলাদেশে এসে তার সম্পূর্ণ টাকা ফেরত দিয়ে যাবে বলেও জানান। টাকা এবং সৌদি নাগরিককে বাংলাদেশে ফেরত আনতে হলে শুরুতে দুই লাখ টাকা এবং তিন ভরি স্বর্ণ ও যুক্তরাষ্ট্রের এক হাজার টাকার ডলার দাবি করেন মান্নান। পবিত্র কোরআন শরিফ ছুঁয়ে শপথ করে বলায় মান্নানকে মার্চ-সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে নগদ ও বিকাশ নম্বরে ২৮ লাখ ৩৬ হাজার টাকা দেন হাছান। এ ঘটনায় হাছান থানায় আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। পরে ওই তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ওসি আরও বলেন, প্রথমে কোতোয়ালি থানার হাজারী গলি এলাকা থেকে এজাহারনামীয় আবু তৈয়বকে গ্রেফতার করা হয়। তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে টেকনাফ থানার হোয়াক্যাং এলাকায় অভিযান চালিয়ে বুধবার রাতে আব্দুল মান্নান ও জোবাইর হোসাইন রিজভীকে গ্রেফতার করা হয়। দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।