Thursday, February 21st, 2019

now browsing by day

 
Posted by: | Posted on: February 21, 2019

রাজধানীতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক

(বাসস) : রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ পুরান ঢাকার চকবাজার এলাকায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে বহুসংখ্যক প্রাণহানির ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।
রাষ্ট্রপতি এক শোকবার্তায় শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা ও অগ্নিকা-ে নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।
রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ সংশ্লিষ্ট সকলকে আহত ও নিহতদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শোক প্রকাশ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজধানী পুরান ঢাকার চকবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে প্রাণহানিতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।
তিনি এই ঘটনায় আহতদের যথযথ চিকিৎসা দেয়া ও নিহতদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদানের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন।
প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম বাসসকে একথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী নিহতদের পরিবারের সদস্যদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানান এবং নিহতদের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন।
ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স জানায়, গতরাতে একটি রাসায়নিক গুদামে অগ্নিকান্ডে আজ সকালে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭০ জনে দাঁড়িয়েছে।

Posted by: | Posted on: February 21, 2019

পুরান ঢাকায় অগ্নিকান্ডে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭০

(বাসস ডেস্ক) : রাজধানী পুরান ঢাকার চকবাজারের একটি রাসায়নিক গুদামে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে আজ সকালে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭০ জনে দাঁড়িয়েছে।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্রে একথা বলা হয়েছে।
গতরাতে ওই ভবনটিতে আগুন ছড়িয়ে পড়ায় অর্ধশতাধিক আহত হয়। সকল সাড়ে সাতটা পর্যন্ত এই ঘটনায় আহত ৪১ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে ১৬ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।
ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক আলি আহমেদ বলেন, গতকাল রাত ১০টা ৪৫ মিনিটে হাজী ওযাহেদ মেনশনের পাঁচ তলা ভবনের নিচ তলায় রাসায়নিক গুদামে আগুন ধরে যায়।
তিনি আরো বলেন, আগুন দ্রুত একটি কমিউনিটি সেন্টারসহ আরো তিনটি ভবনে ছড়িয়ে পড়ে। দমকল বাহিনীর ১৩টি ফায়ার স্টেশনের ৩৭টি ইউনিট চেষ্টা চালিয়ে রাত তিনটির দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছে।
অগ্নিকা-ের কারণ সম্পর্কে এখনো কিছু জানা যায়নি।
আহতদের যথাযথ চিকিৎসায় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার জন্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, এই ঘটনায় হতাহতদের ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে।

Posted by: | Posted on: February 21, 2019

একুশের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন

(বাসস) : বিনম্র শ্রদ্ধা, যথাযথ মর্যাদা ও পূর্ণ ভাবগাম্ভীর্য পরিবেশে অমর একুশে ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহরে জাতি ভাষা শহীদদের স্মরণের মাধ্যমে ‘মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’ পালন শুরু করেছে।
অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রথম প্রহরে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে মহান ভাষা আন্দোলনের বীর শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন।
রাত ১২টা ১টি মিনিটে প্রথমে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং এর পরপরই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এ সময় অমর একুশের কালজয়ী গান ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি…’ বাজানো হয়।
রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে সেখানে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থেকে ভাষা আন্দোলনের শহীদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী শহীদ বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণের পর স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
এরপর আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ মন্ত্রিবর্গ ও দলের সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে নিয়ে দলের পক্ষ থেকে শহীদ মিনারে পুনরায় পুস্পস্তবক অর্পণ করেন।
পরে জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার এ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে ভাষা শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মেয়র সাঈদ খোকন এবং এরপর উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়রও শ্রদ্ধা নিবেদন করেন শহীদ বেদীতে।
জিএম কাদেরের নেতৃত্বে জাতীয় পার্টির নেতৃবৃন্দ শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।
এরপর শহীদ বেদীতে সেনা, বিমান ও নৌবাহিনী প্রধান পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। বাংলাদেশ পুলিশের পক্ষ থেকে মহাপুলিশ পরিদর্শক পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
এরপর অ্যাটার্নি জেনারেল, আনসার গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালক, ভাষা সৈনিকবৃন্দ, বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও হাইকমিশনারবৃন্দ, বিদেশী সংস্থার প্রধানগণ শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এ সময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী তাদের সঙ্গে ছিলেন।
সেক্টর কমান্ডারবৃন্দ ও বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ একুশের প্রথম প্রহরে শহীদ বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
রাষ্ট্রপতি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পৌঁছলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আক্তারুজ্জামান তাঁকে স্বাগত জানান।