sp1

এই গ্লাসে আছে ৫ মেগা পিক্সেলের ক্যামেরা। যেকোনো কিছুর ছবিও এই চশমা ধারণ করতে পারে। প্রায় ২০টি ডিজাইনের এমন স্মার্ট গ্লাস তৈরি হয়েছে। আমেরিকা, ইংল্যান্ড, ইটালিসহ আয়ারল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া এবং কানাডাতে পাওয়া যাচ্ছে এই সানগ্লাস।

চশমাটি দিয়ে ছবির পাশাপাশি ৩০ সেকেন্ডের ভিডিও করা যায়। রয়েছে এলইডি লাইট, যা ছবি তোলার সময় আশপাশের মানুষকে জানান দেবে। এছাড়াও আছে দু’টি স্পিকার ও তিনটি মাইক্রোফোন। আর এখান থেকে তোলা ছবি বা অন্যান্য তথ্য শেয়ার করা যাবে সোশ্যাল মিডিয়াতেও।

আরও পড়ুন: চশমা বদলের সময় হলে বুঝবেন যেভাবে

তবে এই চশমা ব্যবহার করতে লাগবে ফেসবুকে অ্যাকাউন্ট। চার্জ দিয়ে টানা ছয় ঘণ্টা ব্যবহার করা যাবে এই চশমাটি। এই চশমার নাম দেওয়া হয়েছে ‘রে-ব্যান স্টোরিজ’। তবে শুধু ‘রে-ব্যান এই ধরনের স্মার্ট গ্লাস তৈরির চেষ্টা আগে করেনি বরং করেছে গুগলও। এরপর দেখা যায় স্ন্যাপস স্পেকট্যাকলসও। কিন্তু সেই সব চশমা তেমন জনপ্রিয় হয়নি।

ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গের মতে, অগমেন্টেড রিয়্যালিটি এবং ভার্চুয়াল রিয়্যালিটিই হল টেক জগতের ভবিষ্যৎ। সে কারণেই নানা ধরনের প্রযুক্তি নিয়ে কাজ শুরু হয়েছে। এই চশমা এরই একটি অংশ। আগামী দিনেও স্মার্ট গ্লাসে আরও নানা ধরনের ফিচার যোগ করার ভাবনা রয়েছে তার।