stud

শাফিউল বাশারঃ

ঢাকার সাভারে বাসের হাফ ভাড়া দিতে চাওয়ায় স্টাফদের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের মারধর ও লাঞ্ছিতের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে আটটি বাস আটকে রেখেছে শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (০৫ এপ্রিল) দুপুরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সাভার বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ওয়েলকাম পরিবহনের আটটি বাস আটকে রাখেন শিক্ষার্থীরা।

 
এর আগে সকালে সাভার কলেজের শিক্ষার্থীরা ওয়েলকাম পরিবহনের বাসের স্টাফদের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ করেন।
 
 
ভুক্তভোগী সাভার কলেজের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ইউনুস কবির সেলিম বলেন, আমরা সকালে পলাশবাড়ী ও পল্লীবিদ্যুৎ এলাকা থেকে তিন বন্ধু মিলে সাভার কলেজে আসার জন্য ওয়েলকাম পরিবহনের একটি বাসে উঠি। পরে সাভার থানাস্ট্যান্ডে নামার আগে ভাড়া দিতে গেলে তিনজনের ৩০ টাকা স্টুডেন্ট ভাড়া দেই। কিন্তু বাসের স্টাফ হাফ ভাড়া নিতে রাজি না হলে আমাদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে আমাদের গালিগালাজ করলে প্রতিবাদ করি।
 
এ সময় বাসের স্টাফরা আমাদের মারধর করে। এতে আমার হাতে গাড়ির একটি কাচের টুকরো লেগে কেটে যায়। এরপর আমাদের গাড়ি থেকে নামিয়ে দিয়ে বাস নিয়ে পালিয়ে যায় তারা।
 
 
তবে এ বিষয়ে ওয়েলকাম পরিবহনের মালিকপক্ষের সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।
 
সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (অপারেশন্স) মাকারিয়াস দাস বলেন, স্টুডেন্ট ভাড়া নিয়ে বাসের স্টাফ ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে ঝামেলা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা থানায় আমাদের কাছে বিচার চাইতে এসেছেন। আমরা বিষয়টি সুরাহার জন্য উভয়পক্ষের সাথে কথা বলছি। তবে শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে একটি অভিযোগ গ্রহণ করা হবে।