ru

এবার সম্ভবত রাশিয়ার মূল ভূখণ্ডে হামলা চালিয়েছে ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের বরাতে এনডিটিভি এমন খবর দিয়েছে।

ইউক্রেনের সাংবাদিক ইউরি বুটুসভ দাবি করেন, ইউক্রেনের ১৯তম ক্ষেপণাস্ত্র ব্রিগেডের ওটিআর-২১ টোকখা-ইউ দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র রাশিয়ার একটি সামরিক ডিপো ধ্বংস করে দিয়েছে।

মাসখানেক ধরে ইউক্রেনে সামরিক অভিযান চালিয়ে আসছে রাশিয়া। তাসের বরাতে রয়টার্স বলছে, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ইউক্রেনের সীমান্তে রাশিয়ার একটি অস্থায়ী সামরিক ক্যাম্পে একটি গোলা আঘাত হেনেছে।

প্রাথমিকভাবে পাওয়া তথ্য বলছে, ইউক্রেন থেকে হামলাটি চালানো হয়েছে। তাসের এই খবরের আগে স্থানীয় এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেন, বেলগোরোদ শহরের বাইরে কয়েক দফায় বিস্ফোরণ ঘটেছে। শহরটি ইউক্রেনের সীমান্তঘেঁষা।

স্থানীয় বেলগোরোদ নিউজের একটি ভিডিওতে দূর থেকে বিস্ফোরণ ঘটতে দেখা গেছে। কিন্তু বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই ঘটনার সত্যতা যাচাই করতে পারেনি।

তাসের খবরে বলা হয়, বিস্ফোরণে চার ব্যক্তি আহত হয়েছেন। এর আগে বেলগোরোদের গভর্নর ভাইচেসলাভ গ্লাদকভ বলেন, শহর থেকে ৩০ কিলোমিটার দক্ষিণপূর্বে ক্রাসনি অক্তিবর গ্রামের কাছে বিস্ফোরণগুলো ঘটেছে। কিন্তু বিস্ফোরণের কারণ নিয়ে তিনি কোনো তথ্য দেননি।

গত ফেব্রুয়ারির শেষ দিকে মিল্লিরেভো বিমানঘাঁটিতে হামলার পর রাশিয়ার ভূখণ্ডে এটি দ্বিতীয় কোনো আঘাত। রাশিয়ার উপপ্রতিরক্ষামন্ত্রী আলেক্সান্ডার ফোমিন বলেন, পারস্পরিক আস্থা বাড়াতে কিয়েভ ও চেরনিহিভের দিকে সামরিক তৎপরতা কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত হয়েছে।