24j final

 প্রেস ওয়াচ রিপোর্টঃআজ বুধবার,২৪ মার্চ,২০২২ খ্রি. তারিখে মুজিব শতবর্ষ এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’র ১০২তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত বর্ষকালব্যপী জুম ওয়েবিনারে এক বিশেষ্ আলোচনা সভার ২৩৪তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।                               

জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন শিক্ষা ক্যাডারের সহযোগী অধ্যাপক ও বঙ্গবন্ধু গবেষক আবু সালেক খান এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন অস্ট্রেলিয়া থেকে ওয়েস্টার্ন সিডনি ইউনিভার্সিটির ফেলো ড.তানভীর ফিত্তীণ আবীর,রংপুর থেকে তার্কিক  আসাদুজ্জামান আবির,ফারইস্ট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক কাজী ফারজানা ইয়াসমিন ও নীলফামারীর জলঢাকা থেকে পিএইচডি গবেষক ফাতেমা তুজ-জোহরা লিমা। 

সভায় গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, গোপালগঞ্জ এর বঙ্গবন্ধু ইনস্টিটিউট অব লিবারেশন ওয়ার এন্ড বাংলাদেশ স্টাডিজ এর অধীনে পিএইচডি গবেষণারত প্রশান্ত কুমার সরকার এবং মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন কুষ্টিয়ার খোকসা থেকে দৈনিক কুষ্টিয়া পত্রিকার সিনিয়র সাংবাদিক হুমায়ুন কবির ।

সভাপতির বক্তৃতায় ড. কলিমউল্লাহ বলেন,দেশের সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু চর্চার প্রাতিষ্ঠানিকীকরণ নিশ্চিত করতে হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে গবেষক আবু সালেক খান বলেন,প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে যা পাঠদান করা হচ্ছে তা এক কথায় নৈরাশ্যে ভরপুর। এখনই ব্যবস্থা না নিলে পুরো জাতি একদিন আগের চেয়েও বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে বেশি ভুল ধারণা পোষণ করবে।

 ড.আবীর বলেন,ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণই ছিল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রাজনৈতিক দূরদর্শিতার আধার।

প্রশান্ত কুমার সরকার বলেন, বঙ্গবন্ধু উন্নয়ন দর্শন নিয়ে অযাতিত এবং অসত্য প্রচার করে নতুন প্রজন্মকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা করা হয়েছে।  

ফাতেমা-তুজ-জোহরা লিমা বলেন, বঙ্গবন্ধু ও বাকশাল নিয়ে নতুন প্রজন্মকে বিভ্রান্ত করা হয়েছে।আজো সেই চেষ্টা অব্যাহত আছে। জানিপপ বঙ্গবন্ধু উন্নয়ন দর্শন ও বাকশাল নিয়ে অপ্রচারের বিরুদ্ধে  নতুন প্রজন্মকে সজাগ করে যাচ্ছে ।

সাংবাদিক হুমায়ুন কবির বলেন,বঙ্গবন্ধু ৭ই মার্চে ঠিক যে কথাটি বলা দরকার ছিল, সেটি বলে সাড়ে সাত কোটি বাঙালিকে ঐক্যের জায়গায় এনেছিলেন।

 দিপু সিদ্দিকী বলেন,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন বহুমুখী প্রজ্ঞার অধিকারী।

সভাটি সঞ্চালনা করেন রয়েল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা’র সহযোগী অধ্যাপক,বিভাগীয় প্রধান ও ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক দিপু সিদ্দিকী।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত প্রকৌশলী শাফিউল বাশার ,সোনালী ব্যাংকের কর্মকর্তা ইএন রুমা,চাঁদপুর নুরপুর থেকে সমাজ সেবক ফখরে আলম মুন্সী এবং নাটোর থেকে স্কুল শিক্ষিকা মমতাজ বেগম।