ru

                            

প্রেস ওয়াচ রিপোর্টঃ রবিবার মুজিব শতবর্ষ এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’র ১০২তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত বর্ষকালব্যপী জুম ওয়েবিনারে এক বিশেষ্ আলোচনা সভার ২৩০তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।                              

জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন শিক্ষা ক্যাডারের সহযোগী অধ্যাপক ও বঙ্গবন্ধু গবেষক আবু সালেক খান,বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন ফারইস্ট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক কাজী ফারজানা ইয়াসমিন।

এবং মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, গোপালগঞ্জ এর বঙ্গবন্ধু ইনস্টিটিউট অব লিবারেশন ওয়ার এন্ড বাংলাদেশ স্টাডিজ এর অধীনে পিএইচডি গবেষণারত প্রশান্ত কুমার সরকার।  

সভাপতির বক্তৃতায় ড. কলিমউল্লাহ বলেন,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সবসময় সুচিন্তিত বক্তব্য রাখতেন।তিনি আরো বলেন,বঙ্গবন্ধু দৃঢ় ব্যক্তিত্বের অধিকারী ছিলেন। তিনি দূরদর্শিতা এবং চিন্তাশীলতার সঙ্গে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতেন ।

গবেষক আবু সালেক খান বলেন,  বর্তমানে বাংলাদেশ নেতায় নেতাময়। কেউ বঙ্গবন্ধুর মতো নয়।জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান  সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি।    

প্রশান্ত কুমার সরকার বলেন,স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে দেশের অস্থিতিশীল পরিস্থিতি মোকাবেলায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় রক্ষীবাহিনী গঠন করেছিলেন ।যা ছিল সেই সময়ের প্রেক্ষাপটের জন্য যুগপোযোগী এক পদক্ষেপ।   

কাজী ফারজানা ইয়াসমিন বলেন, বঙ্গবন্ধু জীবিত না থাকলেও তাঁর আদর্শ থেকে গেছে আমাদের মাঝে। আমাদের যে কোন ভালো কাজের স্বীকৃতি এবং অর্জন বঙ্গবন্ধুর আদর্শেরই প্রতিফলন।

সভায় বক্তারা ‘পলীবন্ধু পদকে’ ভূষিত হওয়ায় জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’কে অভিনন্দন জানান এবং তাঁর সুস্বাস্থ্য, দীর্ঘায়ু ও কর্মমুখর জীবন কামনা করেন। বক্তারা আরো বলেন,শিক্ষাক্ষেত্রে অসামান্য অবদান রাখার জন্য ২০২১ সালে ‘পলীবন্ধু পদকে’ভূষিত হওয়ায় আমরা আনন্দিত ও গবির্ত।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন পঞ্চগড় থেকে খাদেমুল ইসলাম।