dpl

শাফিউল বাশার: কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে দুই মৌসুম স্থগিত থাকার পর আগামীকাল থেকে মাঠে গড়াবে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল)।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এই লীগের নামকরণ করা হয়েছে ‘বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ’।
টি-টোয়েন্টি ফর্মেটে শুরু হলেও করোনার কারণে গদ বছর শেষ পর্যন্ত স্থগিত হয়ে যায় ডিপিএল। এর আগে সর্বশেষ ২০১৯-২০ অনুষ্ঠিত হয়েছিল ওয়ানডে ফর্মেটে।
ক্লাব এবং সমর্থকদের উচ্ছ্বাসের জন্য দুই মৌসুম পর ফিরে এসেছে সবসময় হয়ে আসা ৫০ ওভারের ফরম্যাট। লিগ লিস্ট ‘এ’ মর্যাদা পাবার পর থেকে এটি হবে সপ্তম ডিপিএল।
হ্যাট্রিক শিরোপায় চোখ রেখে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আবাহনী উদ্বোধনী দিনে প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হবে রূপগঞ্জ টাইগার্সের। ম্যাচটি হবে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।
উদ্বোধনী দিনে বিকেএসপি-৩ মাঠে লড়বে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব ও সিটি ক্লাব এবং বিকেএসপি-৪ মাঠে খেলবে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স ও লিজেন্ডস অফ রূপগঞ্জ।
প্রথম বিভাগ থেকে ডিপিএলে এই মৌসুমে উত্তীর্ণ হয়েছে রূপগঞ্জ টাইগার্স ও সিটি ক্লাব।
এই আসরে ১২টির পরিবর্তে ১১টি দল ট্রফির জন্য লড়বে। তিনবারের রানার্স-আপ দল প্রাইম দোলেশ্বর এবারের আসরে খেলবে না। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দোলেশ্বর ম্যানেজমেন্ট লিগের আগে সঠিকভাবে দল গঠন করতে পারেনি।
যেহেতু ১১ টি দল এই টুর্নামেন্টে অংশ নিবে, তাই দু’টির পরিবর্তে একটি দলকে রেলিগেশন করা হবে। তবে লিগ টেবিলের নিচের তিনটি দল রেলিগেশন পর্বে খেলবে।
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহি নিজাম উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, শেষ মুহূর্তে দোলেশ্বরের নাম প্রত্যাহারের ঘটনায় ঘটনায় তারা বিব্রত।
তিনি বলেন, ‘আমরা এই ঘটনায় বিব্রত কারণ, তারা শেষ মুহূর্তে লিগ থেকে সরে গেছে। বোর্ড তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবে।’
দুই মৌসুম পর এবারের ডিপিএলে বিদেশি খেলোয়াড়দের দেখা যাবে।
আগের দুই সংস্করণে ক্লাবগুলোকে বিদেশি ক্রিকেটারদের দলে নিতে দেয়নি ক্রিকেট কমিটি অফ ঢাকা মেট্রোপলিস (সিসিডিএম)। এবার তারা ক্লাবগুলোকে একজন করে বিদেশি খেলোয়াড় খেলার অনুমতি দিয়েছে। প্রায় সব ক্লাবই সুযোগ কাজে লাগিয়েছে।
আজ ওয়ালটনকে লিগের টাইটেল স্পন্সর হিসেবে ঘোষণা করেছে বিসিবি। এর মাধ্যমে টানা দশমবারের মতো স্পন্সরশিপ পেল ওয়ালটন। লিগের অফিসিয়াল নাম ‘বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ ২০২১-২০২২ স্পন্সর বাই ওয়ালটন।’
দক্ষিণ আফ্রিকা সফর নিয়ে ব্যস্ত থাকায় লিগের শুরু থেকেই জাতীয় খেলোয়াড়দের পাবে না ডিপিএল। ওয়ানডে দলে যারা আছেন তারা ষষ্ঠ বা সপ্তম রাউন্ড থেকে নিজ নিজ দলে যোগ দিতে পারেন। কিন্তু টেস্ট দলে যারা আছেন, তারা সুপার লিগের প্রথম দু’টি ম্যাচ মিস করতে পারেন।
পয়েন্টের ভিত্তিতে সেরা ছয়টি সুপার লিগ খেলবে।