ucrr

বুধবার (৯ মার্চ) মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ইউক্রেনের জাতীয় সংবাদ সংস্থা ইউক্রিনফরমের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, ইউক্রেনের উপ-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মঙ্গলবার (৮ মার্চ) বলেছেন, স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে যেসব বিদেশি রুশ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে অংশ নেবেন, তাদের ইউক্রেনের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে।

ইয়েনিন বলেন, ‘ইউক্রেন যুদ্ধে যোগ দিতে চাওয়া বিদেশিদের জন্য আন্তর্জাতিক লিজিয়ন অব টেরিটোরিয়াল ডিফেন্স বিভাগ খোলা হচ্ছে। আগ্রহীরা রুশ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ও বৈশ্বিক নিরাপত্তা রক্ষায় লড়াই করবেন।’

তার মতে, যুদ্ধে যোগ দিতে ইচ্ছুক বিদেশি স্বেচ্ছাসেবকদের সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে।

ইউক্রেনের উপ-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, ‘যারা চুক্তিতে সই করেছেন, তারা সামরিক পাসপোর্ট পাবেন। তারপর তা রেসিডেন্স পারমিটে রূপান্তর করা হবে। ভবিষ্যতে তাদের কেউ যদি নাগরিকত্ব চান, তাহলে আইনি ব্যবস্থার মাধ্যমে তা দেখা হবে।’