z

দেশটির বিরোধীদলীয় আইনপ্রণেতা ইলিয়া কিভা এমন দাবি করেছেন।

শনিবার (৫ মার্চ) রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বার্তা সংস্থা স্পুটনিক নিউজ এমন খবর দিয়েছে। তবে এই দাবি নিয়ে পোল্যান্ডে মার্কিন দূতাবাস কিংবা ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের কার্যালয় থেকে কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

যদিও ইনস্টাগ্রামের একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি তার কার্যালয়ে বসে কাজ করছেন। ভিডিওতে তিনি বলেন, প্রতিটি মুহূর্তে খবর আসছে, আমি ইউক্রেন ছেড়ে পালিয়েছি। কিন্তু আমি এখনো এখানে আছি। প্রেসিডেন্ট কার্যালয়ের প্রধান অ্যান্ড্রে বোরিসোভিকও কিয়েভে অবস্থান করছেন। কেউ পালিয়ে যায়নি।

শুক্রবার রাশিয়ার পার্লামেন্ট স্টেট দুমার স্পিকার ভিচেসলাভ ভলোদিন বলেছেন, জেলেনস্কি ইউক্রেন ছেড়ে পোল্যান্ডে পাড়ি জমিয়েছেন। এরপরে ইউক্রেনের সুপ্রিম কাউন্সিল ভেরখোভনা রাদা জানিয়েছে, জেলেনস্কি ইউক্রেন ছাড়েনি। তিনি বর্তমানে কিয়েভে আছেন।