5marcjani1

আইরিন নাহারঃশনিবার মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত বর্ষকালব্যপী জুম ওয়েবিনারে আলোচনা সভার ২১৫তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।              

জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু ইনস্টিটিউট অব লিবারেশন ওয়ার এন্ড বাংলাদেশ স্টাডিজ এর অধীনে পিএইচডি গবেষণারত প্রশান্ত কুমার সরকার এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন নীলফামারীর জলঢাকা থেকে পিএইচডি গবেষক ফাতেমা তুজ-জোহরা লিমা।    

সভায় গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন দিনাজপুর বীরগঞ্জ উপজেলার ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মুর্শিদ অর্ণব এবং মুখ্য আলোচক ও সঞ্চালক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন রয়েল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা’র সহযোগী অধ্যাপক,বিভাগীয় প্রধান ও ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক দিপু সিদ্দিকী।    

সভাপতির বক্তৃতায় ড. কলিমউল্লাহ বলেন, বঙ্গবন্ধু বাঙালির স্বপ্ন বাস্তবায়নকারী ক্ষণজন্মা মহাপুরুষ।   

গবেষক প্রশান্ত কুমার সরকার বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নিজের স্বার্থকে জাতীয় স্বার্থে বিলীন করে দিয়েছিলেন। তাই তিনি পরিণত হয়েছিলেন বাংলার সব বর্ণের, সব ধর্মের, সব মানুষের এক অবিসংবাদিত নেতায়।

গবেষক ফাতেমা তুজ-জোহরা লিমা বলেন,বঙ্গবন্ধু ছিলেন জনগণের পক্ষে। স্বাধীন মতপ্রকাশের পক্ষে।

গোলাম মুর্শিদ অর্ণব বলেন,বঙ্গবন্ধু ছিলেন গণতন্ত্রের অতন্দ্র প্রহরী।

দিপু সিদ্দিকী বলেন,গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ, শৃঙ্খল ও শোষণমুক্তির প্রবল আকাঙ্ক্ষাই ছিল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সংগ্রামী জীবনের মূল কথা।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত প্রকৌশলী শাফিউল বাশার ও রাজশাহী থেকে ডা. মাহবুবুল হক মনোয়ার।