ju

বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন প্রশাসনিক ভবনের কাউন্সিল কক্ষে ইউজিসির তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন তদন্ত কমিটির প্রধান হিসেবে ইউজিসি সদস্য অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের, ইউজিসির অর্থ ও হিসাব বিভাগের উপপরিচালক মোস্তাফিজার রহমান ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সিনিয়র সহকারী পরিচালক মো. গোলাম দোস্তগীর প্রমুখ।

অন্যদিকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক মো. নুরুল আলম, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক শেখ মো. মনজুরুল হক, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক রাশেদা আখতার, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ, ডেপুটি রেজিস্ট্রার (শিক্ষা) ও কেন্দ্রীয় ভর্তি পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব আবু হাসান প্রমুখ।

আরও পড়ুন : জাবিতে ক্যান্টিনে খেতে বসা নিয়ে দফায় দফায় মারামারি

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, জাবির ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক সম্মান প্রথম বর্ষের ভর্তি ফর্ম বিক্রি করে প্রায় ২০ কোটি টাকা আয় হয়। এর মধ্যে ৮ কোটি টাকার বেশি শিক্ষক-কর্মকর্তারা নিজেদের মধ্যে ভাগ-বাটোয়ারা করে নেন বলে অভিযোগ উঠে। এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার তদন্ত শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)।