tamil

বুধবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য ইনডিপেনডেন্টের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আত্মহত্যা করা ওই সাংবাদিকের নাম টি কুমার।

৫৬ বছর বয়সী ওই সাংবাদিক ভারতীয় বার্তা সংস্থা ইউনাইটেড নিউজ অব ইন্ডিয়ায় (ইউএনআই) ফটোজার্নালিস্ট হিসেবে কর্মরত ছিলেন। একই সঙ্গে টি কুমার ইউএনআইর তামিলনাড়ু ব্যুরোপ্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

গত রোববার সন্ধ্যায় অফিসের নিউজরুমে টি কুমার আত্মহত্যা করেন এবং পরদিন সোমবার অন্য সহকর্মীরা তার মরদেহ উদ্ধার করেন।

বার্তা সংস্থা ইউএনআইর কর্মীরা অভিযোগ করেছেন, ৬০ মাস ধরে প্রতিষ্ঠান তাদের কোনো বেতন পরিশোধ করেনি।
এক বিবৃতিতে বার্তা সংস্থাটির কর্মীরা আরও জানিয়েছেন, নিয়মিত বেতন না পাওয়ায় তীব্র আর্থিক সংকটের মধ্যে ছিলেন টি কুমার।

আরও পড়ুন: ভারতে মুসলিম নারীদের বিক্ষোভে পুলিশের লাঠিপেটা

ইউএনআইর এডিটর-ইন-চিফ অজয় কুমার কাউল সাংবাদিক আত্মহত্যার ঘটনাকে ‘মর্মান্তিক’ বলে উল্লেখ করেছেন। একই সঙ্গে এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করা উচিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তার দাবি, সাংবাদিকের আত্মহত্যার ঘটনার পেছনে কারণ হিসেবে বেতন বাকি থাকার কথা বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে ছড়ানো হচ্ছে।

তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এম কে স্ট্যালিন সাংবাদিকের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন। টি কুমারের স্ত্রী, পুত্র ও কন্যা রয়েছে।