jaf

শনিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সুপ্রিম কোর্টের কনফারেন্স লাউঞ্জে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য নির্বাচন কমিশনার নিয়োগের জন্য যোগ্য ব্যক্তি বাছাইয়ে বিশিষ্টজনদের সঙ্গে দুই দফা বৈঠক করেছে সার্চ কমিটি। সেই বৈঠকের দ্বিতীয় দফায় এসব নাম প্রস্তাব করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে এম সাখাওয়াত হোসেনের নাম প্রস্তাব করেছি। নির্বাচন কমিশনার হিসেবে সাবেক সেনা প্রধান ইকবাল করিম ভূঁইয়া, আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি নাজমুন আরা, সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা সুলতানা কামাল ও সুশাসনের জন্য নাগরিকের (সুজন) বদিউল আলম মজুমদারের নাম প্রস্তাব করেছি।’

জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘যেহেতু অনুসন্ধান কমিটি ১০ জনের নাম প্রস্তাব করবে, তাই নির্বাচন কমিশনার হিসেবে আরও দু–তিনজনের নাম বলেছি। তার মধ্যে সাবেক আইনসচিব কাজী হাবিবুল আউয়াল, খালেদ শামসের নাম বিবেচনা করা যেতে পারে।’

আরও পড়ুন: বিশিষ্ট নাগরিকদের সঙ্গে বৈঠকে সার্চ কমিটি

অনুসন্ধান কমিটির কাছে যত নাম এসেছে, সেগুলো প্রকাশ করার পরামর্শ দিয়ে জাফরুল্লাহ বলেন, ‘কাদের নাম এসেছে, জনগণ দেখতে পারবে। আপনারাও (অনুসন্ধান কমিটি) দেখেশুনে প্রস্তাব করতে পারেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপিসহ বেশ কিছু রাজনৈতিক দল আসেনি। তাদের সঙ্গে আলোচনা করে তাদের আনার চেষ্টা করে দেখেন। বিএনপি সরকার পরিবর্তনের আন্দোলন করছে, সেটি ভিন্ন বিষয়, তারা নির্বাচন কমিশন বিষয়ে নাম প্রস্তাব করতে পারে।’

শনিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত চলে প্রথম দফার বৈঠক। এরপর দ্বিতীয় দফার বৈঠক শুরু হয়ে শেষ হয় দুপুর আড়াইটায়। বৈঠক শেষে সংবাদমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন কয়েকজন বিশিষ্ঠ ব্যক্তি। রোববার (১৩ ফেব্রুয়ারি) বিশিষ্টজন ও পেশাজীবীদের সঙ্গে বৈঠক করবে সার্চ কমিটি। ইতিমধ্যে ৬০ জনের বেশি বিশিষ্ট নাগরিক ও পেশাজীবীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।