jar

টিকা নিতে অনাগ্রহের কারণেই এই চিত্র বলছেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

দীর্ঘ বিরতি দিয়ে জার্মানিতে আবারো করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে যাওয়ায় শঙ্কিত দেশটির সাধারণ নাগরিকসহ প্রবাসীরা।

শুধু গত ২৪ ঘণ্টায় জার্মানির রবার্ট কক ইনস্টিটিউটের তথ্য বলছে, দেশজুড়ে সংক্রমিত হয়েছেন ৩৭ হাজারেরও বেশি মানুষ। হঠাৎ সংক্রমণের উচ্চ মাত্রার হারে দিশেহারা দেশটির সাধারণ নাগরিকেরা।

তবে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছেন হেসেন ও বায়ার্ন অঙ্গরাজ্যের বাসিন্দারা।

এদিকে করোনার টিকা প্রদান কার্যক্রম শুরুর পর থেকেই টিকার দুই ডোজ নিয়েছেন এমন মানুষের সংখ্যা দেশটির মোট জনসংখ্যার শতকরা ৬৭ শতাংশ।

আরও পড়ুন: করোনায় বেসামাল জার্মানিতে বাড়ছে মূল্যস্ফীতি

বাকি নাগরিকদের টিকার আওতায় না আনা গেলে সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি ঠেকানো অসম্ভব মনে করছেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ইয়েন্স স্পাহন।

তাই টিকা গ্রহণে সাধারণ নাগরিকদের এগিয়ে আসার আহ্বান ছিল সবার কন্ঠে।

করোনার চতুর্থ ঢেউ মোকাবিলায় দেশটির প্রবীণদের পাশাপাশি ঝুঁকিতে থাকা সব নাগরিকদের সঙ্গে ইতিমধ্যে দুই ডোজ নেওয়া সবাইকে বুস্টার ডোজ দেওয়ার পরামর্শ জার্মানির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের।