han

Posted by: | Posted on: October 6, 2021

: বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন তারেক রহমানের কাছে তার দলের নেতারা জিম্মি হয়ে আছেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ।
তিনি বলেন, ‘তাদের যেভাবে নির্দেশ দেয়া হয়, তারা সেই অনুযায়ী কাজ করেন। বিএনপির অনেক শিক্ষিত মানুষ আছেন, যাদের মধ্যে পৈশাচিক মানসিকতা নেই। উনারা না চাইলেও জিম্মি হয়ে গেছেন। তারেক জিয়ার কাছে তারা জিম্মি।’
মাহবুব উল আলম হানিফ আজ মঙ্গলবার রাজধানীর রমনায় ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউটের সেমিনার কক্ষে বিশ্ব শিক্ষক দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক সেমিনারে এ কথা বলেন । ‘বঙ্গবন্ধুর দৃষ্টিতে শিক্ষকদের মর্যাদা’ শীর্ষক এই সেমিনারের আয়োজন করে স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ (স্বাশিপ)।
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপির অনেক শিক্ষিত মানুষ আছেন, যাদের মধ্যে পৈশাচিক মানসিকতা নেই। কিন্তু তাদের নেতা পৈশাচিক মানসিকতা লালন করেন এবং মানুষের রক্তের ওপর দিয়ে ক্ষমাতয় আসতে চান। উনারা না চাইলেও জিম্মি হয়ে গেছেন। তারেক রহমানের দ্বারা নির্দেশিত হয়ে তারা সেভাবে কথা বলেন।
আগামী নির্বাচন সকল দলের অংশ গ্রহনে হোক আওয়ামী লীগ সেটিই চায় জানিয়ে হানিফ বলেন, জনগণ যাদের পছন্দ করবে তাদের প্রতি রায় দেবে। এই রায় মানা মানসিকতা পোষন করে নির্বাচন করুন।
তিনি বলেন, আগামীতে নির্বাচন হবে সংবিধান অনুযায়ী। এই দেশে তত্ত্বাবাবধায়ক সরকার আসার আর সুযোগ নেই। সর্বোচ্চ আদালতের রায়ে সেই পদ্ধতি বাতিল করা হয়েছে।
শিক্ষার উন্নয়নে আওয়ামী লীগ সরকারের নেয়া নানা পদক্ষেপ তুলে ধরে মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, দেশ যেমন এগিয়ে যাচ্ছে শিক্ষাও কিন্তু এগিয়ে যাচ্ছে। এবার সরকার কিন্তু ২৬ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়কে জাতীয়করন করেছে। ৩২৫ টি হাইস্কুল এবং ৩৩১টি কলেজকে জাতীয়করন করেছে।
বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর সাজিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে সেমিনারে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী এমপি, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব নজরুল ইসলাম খান, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর মশিউর রহমান, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর আবদুস সালাম ও মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর নুরুল ইসলাম।
সেমিনার লিখিত প্রবন্ধ উপস্থান করবেন স্বাশিপ সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মোঃ শাহজাহান আলম সাজু।
মহিবুল হাসান চৌধুরী এমপি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দর্শন ছিল শিক্ষার মানোন্নয়ন ও শিক্ষকদের মর্যাদা বৃদ্ধি করা। সে লক্ষ্যে বর্তমান শেখ হাসিনা সরকার কাজ করে যাচ্ছে।
তিনি বলেন, এ মাস থেকেই নতুন প্রতিষ্ঠান এমপিওর কাজ শুরু হবে। ননএমপিও সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওর আওতায় আনা হবে।