kas

প্রেসওয়াচ ডেস্কঃ
তালেবান কাবুল দখলের পর ভারতের জম্মু-কাশ্মিরে বেড়েছে জঙ্গি তপৎরতা। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা (আইবি)-র সূত্র বলছে, এই মুহূর্তে কাশ্মিরে ছয়টি জঙ্গিগোষ্ঠী সক্রিয়। এছাড়া গত এক মাসে উপত্যাকার নানা প্রান্তে ছোট-বড় হামলা চালিয়েছে ২৫ থেকে ৩০ জন সন্ত্রাসী।

গত মাসের শেষদিকে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন ও ন্যাটোর সেনা প্রত্যাহার জোরালো হয়। আর এই সুযোগে সীমান্ত ঘেঁষা প্রদেশেগুলো দখল করে তালেবান। তখন থেকেই পাকিস্তানের অধিকৃত কাশ্মির নিয়ন্ত্রণ রেখা ঘেঁষা জঙ্গি শিবিরে নতুন করে তৎপরতা শুরু হয়। এমন দাবি করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার এক কর্মকর্তা। তিনি দাবি করেন, ‘নিয়ন্ত্রণ রেখা হয়ে পাকিস্তানে প্রশিক্ষিত অন্তত তিনশ’ সন্ত্রাসী ভারতে অনুপ্রবেশের অপেক্ষায় রয়েছে’।

কাবুল জয়ের পর আফগানিস্তান থেকে লস্কর-ই-তইবা, জইশ-এ-মুহাম্মদের জঙ্গিরা পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মিরের রাজধানী মুজফ্ফরাবাদে ফিরেছে বলে জানা গেছে। 

ইতিমধ্যে কাশ্মিরের বিভিন্ন এলাকা থেকে অন্তত ৬০ জন যুবক ‘নিখোঁজ’ হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তাদের গন্তব্য পাকিস্তানের জঙ্গি প্রশিক্ষণ শিবির বলেই আশঙ্কা করছে ভারতীয় গোয়েন্দা বাহিনী। এ বিষয়ে কাশ্মীরের পুলিশ প্রধান ভিজে কুমার বলেন, ‘তারা কাজের কথা বলে বেরিয়েছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত খোঁজ মেলেনি। বিষয়টি গভীর উদ্বেগের। ভুল পথে যাওয়া যুবকদের মূলধারায় ফিরে আসার অনুরোধ জানাচ্ছি’।

গত ১৫ আগস্ট আফগান সরকারের পতন ঘটিয়ে রাজধানী দখল করে তালেবান। তালেবান অল্প সময়ের মধ্যেই সরকার গঠন করতে যাচ্ছে। ভারত আশঙ্কা করছে এই গোষ্ঠীটি ক্ষমতায় ফেরায় এই অঞ্চলে সন্ত্রাসী কার্যক্রম বাড়তে পারে।

সূত্র: আনন্দবাজার, এনডিটিভি