ara

ডেইলি প্রেস ওয়াচ রিপোর্টঃ

তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেছেন, ‘বঙ্গবন্ধু হত্যার মাস্টারমাইন্ড খুনি জিয়ার মরোণোত্তর বিচার এবং ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের সমাবেশে গ্রেনেড হামলায় জড়িত তারেক রহমানের বিচারের রায় দ্রুত বাস্তবায়ন করতে হবে।’

আড়াইহাজার উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ উদ্যোগে শোকাবহ ১৫ আগস্ট এবং ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় আহত ও নিহতদের স্মরণে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। শনিবার (২১ আগস্ট) বিকালে আড়াইহাজার মুক্তিযোদ্ধা এসএম মাজহারুল হক অডিটরিয়ামে এ  আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের নির্মমভাবে হত্যার পর জিয়াউর রহমান ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ জারি করে হত্যায় জড়িতদের রক্ষা করতে চেয়েছিল। ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর উত্তরসূরি তার মেয়ে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গ্রেনেড হামলা চালিয়ে ও গুলি করে হত্যার চেষ্টা করা হয়। সেদিন আল্লাহ তাকে রক্ষা করলেও বহু নেতাকর্মীর মৃত্যু হয়, অনেকে আহত হয়েছেন। কিন্তু বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের রায় কার্যকর করেছেন এবং ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলারও বিচার করছেরত

তিনি বলেন, ‘কী অপরাধ ছিল বঙ্গবন্ধুর? জাতির পিতা এ দেশের নির্যাতিত-নিপীড়িত বঞ্চিত মানুষের অধিকারের কথা বলেছিলেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতা চেয়েছিলেন এবং নির্যাতিত মানুষের মুক্তি চেয়েছিলেন– এটাই হলো বঙ্গবন্ধুর বড় অপরাধ!’

আড়াইহাজার উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আহমদুল কবির উজ্জ্বলের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন– নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক সুব্রত পালসহ অনেকে।সুত্র-বাংলা ত্রি বিউন